জয়পুরহাটে ৭ মাসের নবজাতক শিশুকে হত্যা অভিযোগে দুইজনকে গ্রেপ্তার

Desk Reporter
Desk Reporter
প্রকাশিত: ৪:২২ অপরাহ্ণ, জুলাই ৬, ২০২১

আবু মুসা,জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ জয়পুরহাট সদর উপজেলার কাদোয়া ফকিরপাড়া গ্রামে বাড়ির উঠোনে ছাগল যাওয়াকে কেন্দ্র করে খাদিজা খাতুন নামে এক গৃহবধুর পেটে লাঠি দিয়ে আঘাত করে ৭ মাসের নবজাতক শিশুকে হত্যা করার অভিযোগে দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, কাদোয়া ফকিরপাড়া গ্রামের আব্দুল আলিমের স্ত্রী পারভিন আক্তার ও তার মেয়ে সাদিয়া আক্তার।

জয়পুরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর জাহান জানান, গত রোববার বিকেলে গৃহবধু খাদিজার ছাগল পারভিন আক্তারের উঠোনে যায়। এ নিয়ে পারভিনসহ অনেকজন লাঠিসোটা হাতে খাদিজার বাড়িতে গেলে তাদের মধ্যে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে অন্তঃসত্বা খাদিজার পেটে লাঠি দিয়ে আঘাত করে সাদিয়া। সোমবার সকালে অন্তঃসত্বার পেটে ব্যথা অনুভব হলে সে ৭ মাসের একটি ছেলে শিশু প্রসব করে। যার শরীরে বিভিন্ন স্থানে লালছে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পরে তাদের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি করালে গতকাল বিকেলে চিকিৎসক নবজাতকটিকে মৃত ঘোষনা করেন।

এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ভারপ্রাপ্ত আরএমও ডা: মিজানুর রহমান জানান খাদিজা খাতুন নামে ২৩ বছরের এক নারী অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে , গাইনি চিকিৎসক তার চিকিৎসা চালিয়ে যাচ্ছে। সন্তান সম্ভবা নারী হওয়ায় তার এবরশন হয়ে গেছে। শিশুর গায়ে আঘাতের চিহৃ আছে।