সিরাজগঞ্জে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় স্কুলছাত্রীকে মারপিট, বাঁশের বেড়ায় পরিবার অবরুদ্ধ

Desk Reporter
Desk Reporter
প্রকাশিত: ১২:৫৮ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১২, ২০২১

আমিনুল ইসলাম,সিরাজগঞ্জ ঃসিরাজগঞ্জের তাড়াশে স্কুলে যাবার পথে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় ১০ম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে মারপিট এবং তার পরিবারকে বাঁশের বেড়া দিয়ে অবরুদ্ধ করার অভিযোগ উঠেছে তিন বখাটের বিরুদ্ধে।

রবিবার বিকালের দিকে স্কুলছাত্রী ও তার পরিবার স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করলে বিষয়টি নজরে আসে। এর আগে গত মঙ্গলবার উপজেলার আজিম নগর মহিলা কারিগরি স্কুল অ্যান্ড কলেজের অদূরে উত্ত্যক্তের ঘটনা ঘটে। ওইদিন রাতেই স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে উপজেলার নওগাঁ ইউনিয়নের কালুপাড়া গ্রামের আশরাফ আলীর ছেলে রুবেল (১৮), দেলবার হোসেনের ছেলে নয়ন (২০) ও পলানের ছেলে নাজমুল  হকের (২০) বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেন।

এদিকে থানায় অভিযোগ করার পরও শনিবার রাতে ওই তিন বখাটে স্কুলছাত্রীর বাড়িতে বাঁশের বেড়া দিয়ে পুরো পরিবারকে অবরুদ্ধ করে রাখে। রবিবার দুপুরের দিকে ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছে বাঁশের বেড়া কেটে চলাচলের রাস্তাা উন্মুক্ত করে।তবে অভিযুক্তরা পলাতক রয়েছে বলেও দাবী করে পুলিশ।

ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রী, তার পরিবার ও প্রত্যক্ষদর্শী চালক নাজমুল হকের সাথে কথা বলে জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে ব্যাটারি চালিত অটোভ্যানে ওই স্কুলছাত্রী আজিমনগর মহিলা কারিগরি স্কুল অ্যান্ড কলেজে আসছিল। কলেজের অদূরে তাকে ভ্যান থেকে নামিয়ে উত্ত্যক্ত করতে থাকে ওই তিন বখাটে। এ সময় প্রতিবাদের চেষ্টা করলে তাকে প্রকাশ্যে মারপিট করা হয়। রাতেই তিন বখাটের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেন স্কুল ছাত্রীর বাবা। এসব ঘটনার তিনদিন পর শনিবার ওই স্কুলছাত্রীর বাড়িতে যাতায়াতের রাস্তায় বাঁশের বেড়া দিয়ে অবরুদ্ধ করে রাখে বখাটেরা।

রোববার  বিকালের দিকে পুলিশ এসে বাঁশের বেড়া কেটে তাদের মুক্ত করেদেয়।এ বিষয়ে আজিমনগর মহিলা কারিগরি স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত সুপারিনটেনডেন্ট মিজানুর রহমান বলেন, ঐ ছাত্রীকে এর আগেও আসা-যাওয়ার পথে উত্ত্যক্ত করেছে নয়ন, রুবেল ও নাজমুল।

তাড়াশ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফজলে আশিক বলেন, স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্তের ঘটনায় তার বাবা বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ করেছে। অবরুদ্ধ করার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে বাঁশের বেড়া কেটে দিয়ে ওই পরিবারের চলাচলের পথ উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে। ঘটনার পর থেকে আসামীরা পলাতক রয়েছে। তাদের গ্রেফতারে পুলিশী অভিযান অব্যাহত রয়েছে।#