ঋণ খেলাপির দায়ে আমতলী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি

CNNWorld24
CNNWorld24 Dhaka
প্রকাশিত: 9:40 PM, February 17, 2021

রেজাউল করিম;আমতলী,বরগুনা: বরগুনার আমতলী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ গোলাম ছরোয়ার ফোরকানকে ঋণ খেলাপীর দায়ে চেয়ারম্যান পদ থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন আদালত।

বরগুনা যুগ্ম জেলা জজ প্রথম আদালত ও নির্বাচন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আল মামুন বুধবার এ রায় দেন। একই সাথে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী আলহাজ¦ সামসুদ্দিন আহম্মেদ ছজুকে ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে চেয়ারম্যান হিসেবে গেজেটভুক্ত করে দায়িত্ব দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালতের বিচারক।

রায় ঘোষনার খবর আমতলীতে ছড়িয়ে পরলে উপজেলার পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম ছরোয়ার ফোরকানের কর্মী সমর্থকরা বিক্ষোভে ফেটে পরেন। তারা এ রায় বাতিলের দাবী জানান।

জানাগেছে, ২০১৩ সালে পটুয়াখালী রুপালী ব্যাংকের শাখা থেকে নিজ নামে এক বছর মেয়াদী ১৬ লক্ষ টাকা ঋণ নেন ফোরকান। যা সুদে-আসলে ২৪ লক্ষ টাকায় দাড়িয়েছে। এছাড়া তার মালিকানাধীন মেসার্স বনানী ট্রেডার্সের নামেরও এক বছর মেয়াদী ঋণ তোলেন গোলাম ছরোয়ার ফোরকান। যা সুদে আসলে ২৭ লক্ষ টাকা হয়। ওই ঋণ পরিশোধ না করায় ২০১৪ সালে বাংলাদেশ ব্যাংকের ঋণ খেলাপীর তালিকায় তার নাম ওঠে। ঋণ খেলাপীর তথ্য গোপান করে ২০১৯ সালের ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিত আমতলী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তিনি মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। ওই নির্বাচনে তিনি বিজয়ী হন। এতে সংক্ষুব্ধ হন প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী সামসুদ্দিন আহম্মেদ ছজু।

ওই বছরের ২১ এপ্রিল ঋণখেলাপির তথ্য সংযোজন করে তার প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী সামসুদ্দিন আহম্মেদ ছজু বরগুনা যুগ্ম জেলা জজ প্রথম আদালত ও নির্বাচন ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় তিনি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ¦ গোলাম ছরোয়ার ফোরকানকে চেয়ারম্যান পদ থেকে অব্যাহতি দিয়ে তাকে বিজয়ী ঘোষনার আবেদন করেন।

বরগুনা যুগ্ম জেলা জজ প্রথম আদালত ও নির্বাচন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আল মামুন সকল তথ্য যাচাই-বাছাই ও সাক্ষ্য গ্রহন শেষে বুধবার ফোরকানকে আমতলী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদ থেকে অব্যাহতি দিয়ে প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী সামসুদ্দিন আহম্মেদ ছজুকে আমতলী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বিজয়ী ঘোষনা করে এ আদেশ দেন।

এ রায়ে মামলার বাদী ও প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী সামসুদ্দিন আহম্মেদ ছজু সন্তুষ্ট হয়ে বলেন, আমি ন্যায় বিচার পেয়েছি।

আমতলী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ¦ গোলাম ছরোয়ার ফোরকান বলেন,আমি ন্যায় বিচার পাইনি। এ রায়ের বিরুদ্ধে আমি উচ্চ আদালতে যাব।

এ বিষয়ে সামসুদ্দিন আহম্মেদ ছজুর আইনজীবি অ্যাডভোকেট জগদীশ চন্দ্র শীল বলেন, গোলাম ছরোয়ার ফোরকান ঋণ খেলাপীর তথ্য গোপন করে নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন।আদালতের বিচারক তার ঋণ খেলাপীর তথ্য যাচাই-বাছাই শেষে নির্বাচন পরিপন্থি কাজ করায় তাকে চেয়ারম্যান পদ থেকে অব্যাহতি দিয়ে প্রতিদ্বন্ধি
প্রার্থী সামসুদ্দিন আহম্মেদ ছজুকে ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে গেজেটভুক্ত করে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেয়ার জন্য নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ দিয়েছেন।

বরগুনা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা দিলীপ কুমার হাওলাদার বলেন, এখনো আদেশ পাইনি।আদেশ পেয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।