ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনায় আক্রান্তদের আইসিইউ বেড পেতে আর্তনাদ

Desk Reporter
Desk Reporter
প্রকাশিত: ৫:৫৩ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৮, ২০২১

জুবায়ের খন্দকার, ময়মনসিংহঃ- চলমান করোনার ২য় ঢেউ মোকাবেলায় গোটা বিশ্ব আজ মুখ থুবরে পড়েছে। বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশও এর বাইরে নয়। আর সেই সূত্র ধরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা প্রতিদিনই বেড়েই চলেছে।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবের এক জড়িপে দেখা গেছে যে, করোনা ভাইরাসের নমুনা সংগ্রহের পরিসংখ্যান থেকে উঠে এসেছে যে, প্রতি ১০০ জনের মধ্যে প্রায় ১০ জন করোনা ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত। আর এই করোনায় আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (আইসিইউ)-তে পর্যাপ্ত পরিমানে বেড নাই। যার ফলে করোনায় আক্রান্ত রোগীর আত্মীয়-স্বজনরা একটি বেড পেতে আর্তনাদ করে বেড়াচ্ছে।

জানা গেছে যে, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউ বেডর সংখ্যা ১০টি থাকলেও প্রায় প্রতিদিনই করোনায় আক্রান্ত রোগী ভর্তি থাকছেন এর থেকে অনেকগুণ বেশী।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডাঃ জাকিউল ইসলাম চ্যানেল সিক্সকে বলেন-প্রায় প্রতিদিনই করোনায় আক্রান্ত রোগীসহ সন্দেহভাজন ভর্তি রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। হাসপাতালের আইসিইউতে বর্তমানে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ১১৪ জন। এরমধ্যে শুধু আইসিইউতেই ভর্তি আছেন ১০ জন। আর গেল ২৪ ঘন্টায় হাসপাতালে করোনায় সন্দেহভাজন রোগী মারা গেছেন ১ জন পুরুষ এবং ১ জন নারী।

আইসিইউতে বেড না থাকার ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন-১০ টি বেড সম্পন্ন আইসিইউতে বর্তমানে কোন বেড খালি নেই। আইসিইউতে বেড পেতে প্রায় প্রতিদিনই রোগীর স্বজনরা আমাদের সাথে যোগাযোগ করছেন। তবে এই ব্যাপারে আমরা নিরুপায় জেনে হতাশ হয়ে তাঁরা ফিরে যাচ্ছেন রোগীর আত্মীয়-স্বজনরা।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও আবাসিক চিকিৎসক ডাঃ ওয়লীদ সরকার বিদ্যুৎ চ্যানেল সিক্সকে বলেন-করোনা পজিটিভ নিয়ে আসা এবং সন্দেহভাজন রোগীর সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। তবে যাদের আগে থেকে যারা ডায়াবেটিস, হৃদরোগসহ জটিল রোগে আক্রান্ত আছেন তারাই বেশি সমস্যায় পড়ছেন। করোনায় আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা সেবা দেওয়ার ব্যাপারে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ যথেষ্ট তৎপর বলে জানান তিনি।

প্রসঙ্গতঃ ময়মনসিংহ সিভিল সার্জন অফিসের একটি সূত্র থেকে জানা গেছে যে, গতকাল ৭ই এপ্রিল পর্যন্ত ময়মনসিংহ সদর উপজেলা ও সিটি কর্পোরেশন এলাকায়  ৩১৪৩ জন, এস কে হাসপাতাল ও ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১ জন, নান্দাইলে ৮২ জন, ঈশ্বরগঞ্জে ১শত ৮৭ জন, গৌরীপুরে ৫১ জন, ফুলপুরে ১শত ৩০ জন, তারাকান্দায় ৫৬ জন, হালুয়াঘাটে ১শত ৭৪ জন, ধোবাউড়ায় ৮২ জন, মুক্তাগাছায় ২শত ৪৩ জন, ফুলবাড়িয়ায় ৯৪ জন, ত্রিশালে ২শত জন, ভালুকায় ৩শত ৭৯জন ও গফরগাঁওয়ে ১শত ৫৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন।