উজিরপুরে মেয়র ও কাউন্সিলরসহ ১৩ জনই আওয়ামীলীগের

CNNWorld24
CNNWorld24 Dhaka
প্রকাশিত: 7:51 PM, December 30, 2020

উজিরপুর প্রতিনিধিঃ বরিশালের উজিরপুর পৌরসভায় ১২ কাউন্সিলরের মধ্যে ৬জনই নতুন
মুখ। এর মধ্যে ১২জন আওয়ামীলীগ সমর্থিত। পৌরসভায় প্রথম ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট প্রদান করায়
স্বস্তিতে ভোটাররা। অবাধ শান্তিপূর্ণভাবে ভোট প্রদান করায় দুইজন সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর ও চারজন
সাধারণ কাউন্সিলর প্রথম বারের মত নির্বাচিত হয়েছেন। এ কারণে পুরো উপজেলা জুড়ে ভোটার ও
সমর্থকদের মধ্যে আনন্দ উল্লাসের কমতি ছিল না। পরাজিত কাউন্সিলর প্রার্থীরা কারো উপর দোষ না চাপিয়ে
নিজেদের কৃতকর্মের কারণে পরাজয়কে মেনে নিয়েছেন।

সাবেক পৌর মেয়র, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও নৌকা প্রতীকের নবনির্বাচিত মেয়র মোঃ গিয়াস উদ্দিন বেপারীর ২০১৫ সালের
নির্বাচনের চেয়ে বর্তমান নির্বাচনে অনেকাংশে ভোটের অঙ্ক বৃদ্ধি পেয়েছে, বৃদ্ধি পেয়েছে
জনসমর্থণও। সকল রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ হিসাব নিকাশে গিয়াস উদ্দিন বেপারীর জয় সুনিশ্চিত ভেবে
রেখেছিলেন। এ কারণে বিপুল ভোটের ব্যবধানে দ্বিতীয় বারের মত আওয়ামীলীগের মনোনিত নৌকা
প্রতীকের মেয়র প্রার্থী মোঃ গিয়াস উদ্দিন বেপারী ৫ হাজার ৭ শত ৫ ভোট পেয়ে মেয়র নির্বাচিত
হয়েছেন। ৯টি কেন্দ্রে বেসরকারীভাবে কাউন্সিলর প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছেন ১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর
প্রার্থী ও সাবেক কাউন্সিলর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি অসীম কুমার ঘরামী ডালিম প্রতীকে ৫শত ৬৯
ভোট পেয়ে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন।

২ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী ও সাবেক কাউন্সিলর উপজেলা
যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ হেমায়েত উদ্দিন উটপাখি প্রতীকে ৫ শত ৩৫ ভোট পেয়ে পুনরায়
নির্বাচিত হয়েছেন। ৩ নং ওয়ার্ডে প্রথম বারের মত নাসির উদ্দিন সিকদার উটপাখি প্রতীকে ৪শত ৭
ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। ৪ নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর মোঃ নজরুল ইসলাম মামুন টেবিল
ল্যাম্প প্রতীকে ৩শত ৬৭ ভোট পেয়ে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন। ৫ নং ওয়ার্ডে প্রথম বারের মত মোঃ
মজিবর রহমান পানির বোতল প্রতীকে ৫শত ১৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। ৬ নং ওয়ার্ডে প্রথম বারের
মত বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় মোঃ হাকিম সিকদার কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন। ৭ নং ওয়ার্ডে বিনা
প্রতিদ্বন্ধিতায় সাবেক কাউন্সিলর মোঃ রিপন মোল্লা পুনরায় কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন। ৮ নং
ওয়ার্ডে সাবেক কাউন্সিলর মোঃ খায়রুল ইসলাম ডালিম প্রতীকে ৩শত ৩১ ভোট পেয়ে পুনরায় নির্বাচিত
হয়েছেন।

৯ নং ওয়ার্ডে প্রথম বারের মত মোঃ খবির উদ্দিন পাঞ্জাবী প্রতিকে ৪শত ২২ ভোট পেয়ে
নির্বাচিত হয়েছেন। ১,২,৩ নং সংরক্ষিত আসনে প্রথম বারের মত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী মোসাঃ
আঁখি খানম অটোরিক্সা প্রতীকে ১ হাজার ১৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। ৪,৫,৬ নং সংরক্ষিত
আসনে প্রথম বারের মত সামসুন্নাহার সীমা চসমা প্রতীকে ৭শত ৯৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।
৭,৮,৯ নং সংরক্ষিত আসনে সাবেক কাউন্সিলর রানী বেগম চশমা প্রতীকে ১ হাজার ৬ শত ৫৭ ভোট পেয়ে
পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন। উজিরপুর পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ১১ হাজার ৯শত ২৪ ভোট, এর মধ্যে
পুরুষ ৫ হাজার ৯শত ৮৮ এবং মহিলা ৫ হাজার ৯শত ৩৬ এর মধ্যে মোট কাষ্ট হয়েছে ৭ হাজার ১শত ৩২ ভোট।
শতকরা হিসেবে ৫৯% ভোট প্রদান করেছেন ভোটাররা। তবে ইভিএম পদ্ধতিতে প্রথম ভোট হওয়ায় এবং
আঙুলের ছাপ না মিলার কারণে কিছু কিছু কেন্দ্রে রাত্র ৬টা পর্যন্ত ভোট গ্রহন করা হয়েছে। সব মিলিয়ে
ইভিএম পদ্ধতির কারণে সাধারণ ভোটারদের মধ্যে ভোট প্রদানের আগ্রহ বৃদ্ধি পেয়েছে বলে ভোটাররা জানান।

আঃ রহিম সরদার