উজিরপুরে আ’লীগ সম্ভাব্য প্রার্থীদের ব্যাপক শো-ডাউন

CNNWorld24
CNNWorld24 Dhaka
প্রকাশিত: 8:23 PM, January 22, 2021

আ.রহিম সরদার; উজিরপুর,বরিশালঃ বরিশালের উজিরপুরে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনকে সামনে রেখে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীদের বায়োডাটা জমা কার্যক্রমের শেষ দিনে উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন পরিষদে বর্তমান চেয়ারম্যানসহ ৭৭ জন প্রার্থী তাদের বায়োডাটা উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে জমা দিয়েছেন।

গত ১৯ জানুয়ারী থেকে ২২ জানুয়ারী রাত ৮টা পর্যন্ত বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রাসহ ব্যাপক শো-ডাউন দিয়ে  নেতাকর্মীরা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নিকট তাদের বায়োডাটা জমা দিয়েছেন। ২২ জানুয়ারী শুক্রবার রাত ৮টা পর্যন্ত সাতলা ইউনিয়ন থেকে ১২ জন, হারতায় ১০ জন, জল্লায় ১১ জন, ওটরায় ১০ জন, শোলকে ১১ জন, বড়াকোঠায় ৮ জন, বামরাইলে ৭ জন, শিকারপুরে ৭ জন এবং গুঠিয়ায় ১১ জন আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য প্রার্থী বায়োডাটা জমা দিয়েছেন। সাতলা ইউনিয়ন থেকে বর্তমান চেয়ারম্যান খায়রুল বাশার লিটন, আনোয়ার হোসেন বালী, শাহীন হাওলাদার, ইদ্রিস সরদার, মশিউর রহমান, সুভাষ রায়, নিকুঞ্জ বালা পলাশ, মনিরুজ্জামান বিশ্বাস, লিটন সরদার, আলমগীর হোসেন, গোলাম ফারুক, ফজলুল হক বালী। হারতায় বর্তমান চেয়ারম্যান হরেন রায়, সাবেক চেয়ারম্যান সুনিল কুমার বিশ্বাস, অমল মল্লিক, খগেন মন্ডল, অভিলাষ হালদার, সিরাজুল ইসলাম, খোকন চন্দ্র হালদার অরুপ, বরুন চক্রবর্তী, কৃষ্ণ বাড়ৈ। জল্লা ইউনিয়ন থেকে বর্তমান চেয়ারম্যান বেবী রানী দাস, সাবেক চেয়ারম্যান উর্মিলা বাড়ৈ, নজরুল ইসলাম বাচ্চু, ফিরোজুল ইসলাম, জহরলাল সরকার, সুভাষ চন্দ্র বিশ্বাস, মিজানুর রহমান নান্নু, সমীর কুমার মজুমদার, খায়রুল ইসলাম, তরিকুল ইসলাম, সুব্রত কুমার মজুমদার। ওটরা ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহাদাত হোসেন, সাবেক চেয়ারম্যান খালেক রাড়ী, ওয়ালিউর রহমান লিংকন, নাজমুল হক স্বপন, জুয়েল হোসেন, রাজ্জাক মৃধা, বাবৃল হোসেন, আকবর হোসেন, মঞ্জুর আলম, মজনু খান। শোলক ইউনিয়ন থেকে বর্তমান চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ কাজী হুমায়ুন কবির, সাবেক চেয়ারম্যান ডাঃ আঃ হালিম, শফিকুল ইসলাম বালী, হুমায়ুন কবির মন্টু, মিজানুর রহমান কিরণ, সাইফুর রহমান, সাখাওয়াত হোসেন, শাকিল আহম্মেদ, বিশ্বজিৎ দাস, নজরুল ইসলাম বাবু ফকির, ওয়ালিউল্লাহ খন্দকার। বড়াকোঠা ইউনিয়ন থেকে বর্তমান চেয়ারম্যান এ্যাডঃ শহিদুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ অ.ন.ম আব্দুল হাকিম, মোঃ মাসুম বিল্লাহ, মোঃ কামরুজ্জামান, কুদ্দুস আলী ডাকুয়া, মিজানুর রহমান কামাল, শাহে আলম হাওলাদার, সাইফুল ইসলাম খোকন। বামরাইল ইউনিয়ন থেকে বর্তমান চেয়ারম্যান ইউসুফ হাওলাদার, সাবেক চেয়ারম্যান গৌরাঙ্গ লাল কর্মকার, মিজানুর রহমান কবির, বীর মুক্তিযোদ্ধা এস.এম মঞ্জুর কুদ্দুস, আতিকুর রহমান পলাশ তালুকদার, জাকির হোসেন হাওলাদার, মোঃ আল আমিন। শিকারপুর ইউনিয়ন থেকে বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ সরোয়ার হোসেন, সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কালাম সরদার, আঃ রহিম মাষ্টার, নজরুল ইসলাম মাঝি, মোঃ সালাম হাওলাদার, মাহাবুব ইসলাম বাদল, আমিরুল ইসলাম রিয়াজ। গুঠিয়া ইউনিয়ন থেকে বর্তমান চেয়ারম্যান ডাঃ দেলোয়ার হোসেন, আঃ ছত্তার মোল্লা, মোঃ রফিকুল ইসলাম শিপন, এস.এম মিন্টু, সিরাজুল ইসলাম, এনামুল হক শাহীন, এ্যাডঃ নীনা নাজনীন, আতাউর রহমান খান,  সাকলান হোসেন খান, বাবুল আক্তার, আসাদ মোল্লা প্রমূখ। প্রধান নির্বাচন কমিশন থেকে আগামী মাচর্ মাসে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন হওয়ার পরিকল্পনা মোতাবেক নির্ধারিত সময়ে কয়েকটি ধাপে নির্বাচন করার পরিকল্পনা নিয়েছে ইসি।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এস.এম জামাল হোসেন এবং সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মোঃ গিয়াস উদ্দিন বেপারী জানান, গুঠিয়া এবং শিকারপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন মেয়াদ শেষ না হলেও দলীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক একই সময়ে তাদেরও বায়োডাটা জমা নেয়া হয়েছে।

দক্ষিণ অঞ্চলের রাজনৈতিক অভিভাবক ও জেলা আওয়ামীলীগের সংগ্রামী সভাপতি আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর নির্দেশনা মোতাবেক এবং জেলা আওয়ামীলীগের সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক এ্যাডঃ তালুকদার মোঃ ইউনুসের দিক নির্দেশনায় পূর্ণাঙ্গ সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা যার হাতে নৌকা প্রতীক উপহার দিবেন তিনি দলের একমাত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবেন বলে বিশ্বাস। বিশ্বস্ত সূত্রে আরো জানা যায়, নির্ধারিত সময়ের পরেও দলের একান্ত ত্যাগী আগ্রহী নেতাকর্মীরা তাদের বায়োডাটা জমা দিতে পারবেন বলে জানা যায়।