জামালপুর ইসলামপুরে যমুনা বামতীরে চিনাডুলী-উলিয়া বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাধঁ নির্মাণের দাবী

CNNWorld24
CNNWorld24 Dhaka
প্রকাশিত: 12:53 PM, January 25, 2021

লিয়াকত হোসাইন লায়ন, জামালপুর প্রতিনিধি: জামালপুরের ইসলামপুরে চিনাডুলী হতে উলিয়া পর্যন্ত যমুনা বামতীরে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাধঁ না থাকায় প্রতিবছর যমুনার পানির স্রোত সাড়ে চারশত কোটি টাকা ব্যায়ে নির্মিত পাইলিং ধ্বস সহ বিস্তীর্ণ এলাকার ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হচ্ছে।

বিস্তারিত ইসলামপুর জামালপুর প্রতিনিধি লিয়াকত হোসাইন লায়নের তথ্য চিত্রে ডেস্ক রিপোর্ট: ফুটেজ: ১ ও২ (যুমনা বাঁধ নিউজ প্যাকেজ এ রয়েছে) প্যাকেজ: জামালপুরের ইসলামপুরে নদী ভাঙ্গন হতে রক্ষাকবজ যমুনা বামতীর সংরক্ষণ প্রকল্পের উপর স্থায়ী বাধঁ না থাকায় যমুনার ফুসেঁ উঠা পানি প্রতিবছর পাইলিং এর উপর দিয়ে প্রবল বেগে প্রবাহিত হয়।

পানির তোড়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডের সারে চারশত কোটি টাকা ব্যায়ে নির্মিত যমুনা বামতীর সংরক্ষণ প্রকল্পের বিভিন্ন স্পটে পাইলিং এর বøক ধ্বসে পড়ছে।

এছাড়াও যমুনা বামতীর সংরক্ষণ পাইলিং উপর দিয়ে প্রবল স্রোত ও বালুতে ইসলামপুরের চিনাডুলী, নোয়ারপাড়া, ইসলামপুর সদর ইউনিয়ন হয়ে মেলান্দহ ও জামালপুর জেলার পশ্চিমাঞ্চলের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে ফসলী জমি, রাস্তা-ঘাট-ব্রীজ কালভার্ড ও ঘরবাড়ী-শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ব্যাপক ক্ষতি হয়।

ফলে যমুনা বামতীরবর্তী বির্স্তীর্ণ অঞ্চলের মানুষ বন্যা চলে গেলেও ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে সারা বছর মানবেতর জীবন যাপন করে।

যমুনার বামতীরে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ কাম রাস্তাটি নির্মাণ হলে এলাকার প্রায় ২০হাজার একর জমির ফসলসহ বাড়ী-ঘর রাস্তা, ব্রীজ, কালভার্ট বন্যা আক্রমন থেকে রক্ষা পাবে।

এলাকাবাসী জরুরী ভিত্তিতে ইসলামপুর উপজেলার চিনাডুলী ইউনিয়নের “মামুন ডাক্তারের বাড়ী হতে উলিয়া পর্যন্ত ” যমুনার বাম তীরে
৮কিলোমিটার বাধঁ কাম রাস্তা নির্মাণে প্রধান মন্ত্রীর নিকট দাবী জানিয়েছেন ।

ভক্সপন ১ ও ২(এলাকাবাসী) যমনা বাঁধ নিউজ প্যাকেজ এ রয়েছে।স্পেশাল কাবিখা প্রকল্পের মাধ্যমে ২৪ফুট প্রসস্থ ১৫ফুট উচ্চতায় যমুনার বামতীরে বাধঁটি নির্মাণ হলে হাজার হাজার একর ফসলী জমি ঘরবাড়ীসহ বহু গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা বন্যার কবল থেকে রক্ষা পাবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় চিনাডুলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আঃ ছালাম।

সিংক: আঃ ছালাম চেয়ারম্যান, চিনাডুলী ইউনিয়ন পরিষদ।ইসলামপুর,জামালপুর।জামালপুরের পশ্চিমাঞ্চলের বহু গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাকে অকাল বন্যা কবল থেকে রক্ষা করতে সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ চিনাডুৃলী হতে উলিয়া পর্যন্ত ” যমুনার বাম তীরে বাধঁটি নির্মাণের দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নিবেন এটাই প্রত্যাশা এলাকাবাসীর।