চিতলমারীতে জায়গা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৬,অগ্নিসংযোগ

CNNWorld24
CNNWorld24 Dhaka
প্রকাশিত: 8:12 PM, January 28, 2021

তাওহিদুর রহমান; চিতলমারী,বাগেরহাট:
বাগেরহাটের চিতলমারীতে জায়গা দখলকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে
নারীসহ ৬ জন আহত হয়েছেন। বুধবার বিকালে উপজেলার দড়িউমাজুড়ি
গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় প্রতিপক্ষরা একটি ঘর ভাংচুর করে আগুন
ধরিয়ে দেয়। প্রতিবেশীরা আহতদের উদ্ধার করে চিতলমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে
ভর্তি করেছে। এ ঘটনায় পরস্পরবিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে। উভয় পক্ষই থানায়
লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

পুলিশ, এলাকাবাসী ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার
দড়িউমাজুড়ি গিরিঙ্গির মোড়ে রবিনা বসু ও বিমল বসুর মধ্যে একটি
জায়গা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। বুধবার (২৭ জানুয়ারী)
দুপুরে ওই জায়গা দখলকে কেন্দ্র করে তাদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে বরিনা
পক্ষের রবিনা বসু (২২), তার স্বামী তপন গাইন (৪০) ও প্রতুল বসু (২০) এবং
বিমল বসু পক্ষের বিমল বসু (৬০), তার স্ত্রী প্রিয়া বসু (৫০) ও ছেলে তনয়
বসু (২৩) আহত হয়। এ সময় প্রতিপক্ষরা একটি নব নির্মিত ঘর ভাংচুর করে
তাতে আগুন ধরিয়ে দেয়। প্রতিবেশীরা আহতদের উদ্বার করে চিতলমারী উপজেলা
স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে।

চিকিৎসাধীন রবিনা বসু জানান, দড়িউমাজুড়ি মৌজার বিআরএস ৫৯৮
নং খতিয়ানের ২৯৫৭ নং দাগে তার ৬ শতক রেকর্ডীয় জায়গা। বুধবার দুপুরে
ওই জায়গায় ঘর তুললে প্রতিপক্ষ বিমল বসু তাদের হামলা চালিয়ে আহত করে। এ
সময় বিমল বসুর ভাড়াটিয়া বাহিনী কাঠের ঘরটি ভাংচুর করে তাতে আগুন
ধরিয়ে পোড়ায় দেয়। এ ঘটনায় তার স্বামী তপন গাইন বাদী হয়ে চিতলমারী
থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

বিমল বসুর ছেলে তনয় বসু বলেন, ওই জায়গাটি আমাদের পূর্ব পুরুষের
জায়গা। আমরা ভোগ দখল করে আসছি। রবিনার লোকজন ঘর তুললে তাদের বাধা
দেওয়ায় পিটিয়ে তারা আমাদের আহত করে। এ ঘটনায় আমার বোন বাদী হয়ে
থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

এ ব্যপারে সন্তোষপুর ইউনিয়নে ৫নং ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ মনোজ বসু
জানান, তনয় বসুর বোন সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন
ধরনের অপকর্ম করে আসছে। সেই প্রভাব খাটিয়ে সে ঘরে আগুন ধরিয়ে দেয়।
যার ভিডিও ডকুমেন্ট ভাইরাল হয়েছে। এর আগে সে অপকর্মের দায়ে
চিতলমারী থানায় একবার মুচলেকা দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় চিতলমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মীর শরিফুল হক
সাংবাদিকদের বলেন, উভয় পক্ষের অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে
আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করব।