ধামইরহাটে পৌরসভার নির্বাচনে বিপুল ভোটে বিজয়ী আওয়ামীলীগ প্রার্থীর আমিনুর রহমান,কাউন্সিলর হলেন সাংবাদিক মেহেদী হাসান

CNNWorld24
CNNWorld24 Dhaka
প্রকাশিত: 5:17 PM, January 31, 2021

এম এ মালেক; ধামইরহাট,নওগাঁ:
নওগাঁর ধামইরহাটে পৌরসভার নির্বাচনে আওয়ামীলীগের নিরঙ্কুশ বিজয় হয়েছে।
বিপুল ভোটের ব্যবধানে আবারও ৫ বছরের জন্য ধামইরহাট পৌর পিতা নির্বাচিত
হয়েছেন বর্তমান মেয়র আমিনুর রহমান।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্ণিং অফিসার মো. সাজ্জাদ
হোসেন জানান, ধামইরহাট পৌরসভার নির্বাচনে ১২ হাজার ৬৪০ জন ভোটারের
মধ্যে ১১ হাজার ৩৯৫ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। সকাল ৮ টা
থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত একটানা ভোট গ্রহণ করা হয়।

এতে নৌকা প্রতীকে
আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী আমিনুর রহমান ৭ হাজার ৯৮৩ ভোট পেয়ে
বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী বিএনপি সমর্থিত
প্রার্থী মাহবুবার রহমান চৌধুরী (ধানের শীষ) প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৩ হাজার
৪৯ ভোট।

অপরদিকে সংরিক্ষত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১,২ ও ৩ ওয়ার্ডে দ্বিতল বাস প্রতীক
নিয়ে ১ হাজার ১২২ ভোট পেয়ে সমাজসেবা রোগীকল্যাণ সমিতির আজিবন
সদস্য জেসমিন সুলতানা নির্বাচিত হন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী টেলিফোন
প্রতীকে ছোবেদা খাতুন ছবি পেয়েছেন ১ হাজার ১০৭ ভোট, ৪, ৫ ও ৬নং
ওয়ার্ডে অটোরিক্সা প্রতীকে মোসা. শাহানাজ বেগম ৯৭৬ ভোট পেয়ে
নির্বাচিত হয়েছেন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী চশমা প্রতীকে সেলিনা আকতার
পেয়েছেন ৬২৯ ভোট এবং ৭,৮ ও ৯নং ওয়ার্ডে মোসা. মিনু আরা আংটি প্রতীক
নিয়ে ৮৮৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী সাথী
রানী মহন্ত চশমা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৬০০ ভোট।

এছাড়া সাধারণ কাউন্সিলর (পুরুষ) হিসেবে যথাক্রমে- ১নং ওয়ার্ডে উটপাখি
প্রতীক নিয়ে শ্যামলী কাউন্টার ম্যানেজার জনপ্রিয় সমাজসেবক মো. আলতাব
হোসেন ৭৭৪ ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে কাউন্সিলর নির্বাচিত হন, তার নিকটতম
প্রতিদ্বন্দী মো. ওয়াদুদ ব্রিজ প্রতীকে পেয়েছেন ২৩৭ ভোট, ২নং ওয়ার্ডে পৌর
আওয়ামীলীগের সম্পাদক মুক্তাদিরুল হক পানির বোতল প্রতীক নিয়ে ৭৮৯ ভোট
পেয়ে পুনরায় কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী টেবিল
ল্যাম্প প্রতীকে ওয়ালিউল হাসনাত পেয়েছেন ৪৪০ ভোট, ৩নং ওয়ার্ডে পানির
বোতল প্রতীক নিয়ে মাহবুব আলম বাপ্পী ৭২১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন,
তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী মো. রেজুয়ান হোসেন পাঞ্জাবি প্রতীক নিয়ে
পেয়েছেন ২৬৮ ভোট, ৪নং ওয়ার্ডে একরামুল হোসেন পানির বোতল প্রতীক নিয়ে
৪৩৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী নেছার উদ্দিন
প্রিন্স ডালিম প্রতীকে পেয়েছেন ৩০৬ ভোট, ৫নং ওয়ার্ডে দলিল লেখক মো.
ইব্রাহীম হোসেন টেবিল ল্যাম্প প্রতীক নিয়ে ৩৭১ ভোট পেয়ে পুনরায়
নির্বাচিত হয়েছেন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী মাহবুব আলম উটপাখি প্রতীকে
পেয়েছেন ৩৩৩ ভোট, ৬নং ওয়ার্ডে দলিল লেখক উমর ফারুক পাঞ্জাবি প্রতীক নিয়ে
৪০৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী দলিল লেখক
আনোয়ার হোসেন পেয়েছেন ৩৪৩ ভোট, ৭নং ওয়ার্ডে আমজাদ হোসেন টেবিল
ল্যাম্প প্রতীক নিয়ে ৫১৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন, তার নিকটতম
প্রতিদ্বন্দী শামীম রেজা উটপাখি প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৩৭৯ ভোট, ৮নং
ওয়ার্ডে উপজেলা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক, পৌর কমিউনিটি পুলিশিং
কমিটির সম্পাদক তরুন যুব সংগঠক সাংবাদিক মেহেদী হাসান পানির বোতল
প্রতীক নিয়ে ৬৪৬ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন, তার নিকটতম
প্রতিদ্বন্দী আশরাফ হোসেন চৌধুরী শিপন টেবিল ল্যাম্প প্রতীকে পেয়েছেন
২৭৫ ভোট এবং ৯নং ওয়ার্ডে পাঞ্জাবি প্রতীক নিয়ে ৫৬৩ ভোট পেয়ে আব্দুল
হাকিম পুনরায় কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী রেজা
তৌফিকুর রহমান পেয়েছেন ৪১৪ ভোট।