এক পরিবারের পাচঁ প্রতিবন্ধী, ৪ জনের ভাগ্যে জুটেনি প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড

CNNWorld24
CNNWorld24 Dhaka
প্রকাশিত: 7:04 PM, February 1, 2021

শাহরিয়ার মিল্টন, শেরপুর:  শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে পাঁচ সদস্যের এক পরিবারের ৫ জনই প্রতিবন্ধী। এদের মধ্যে পরিবার প্রধান রফিকুল ইসলাম (৪৫) একটি প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড পেলেও বাকি ৪ জনের ভাগ্যে জুটেনি প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড। রফিকুল ইসলাম উপজেলার ধানশাইল ইউনিয়নের কান্দুলী মাঝাপাড়া গ্রামের মৃত সেকান্দর আলীর ছেলে।

জানা গেছে, রফিকুল ইসলাম  জন্ম থেকেই বোবা। কোন কথা বলতে পারেন না। তার স্ত্রী অজুফা বেগম (৩৭) কথা বলতে পারলেও কানে শুনেন না। ছেলে আক্কাস আলী (১৪), ও আশরাফুল(১০) মেয়ে রিমি (৪) বোবা। রফিকুল ইসলাম একজন দিনমজুর। সহায় সম্বল বলতে বসতবাড়ির ৫ শতাংশ জমি আর একটি ঘর ছাড়া তার আর কিছুই নেই। রফিকুল ইসলাম কথা বলতে না পারলেও ইশারায় সবকিছুই বুঝেন। দিনমজুরী করে চলে তার সংসার।

প্রতিবেশীরা জানান, যখন হাতে কাজ না থাকে তখন অনাহারে অর্ধাহারে দিন কাটে রফিকুল ইসলামের পরিবারের সদস্যদের। রফিকুল ইসলাম একটি প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড পেলেও বাকি ৪ জনের ভাগ্যে আজো জুটেনি প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড । বর্তমানে মানবেতর জীবনযাপন করছে পরিবারটি।

ধানশাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম বলেন ,পরিবার প্রধান রফিকুল ইসলামকে একটি প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড দেয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে বাকিদেরকেও দেয়া হবে।