গুরদাসপুরে উপজেলা চেয়ারম্যানের ওপর হামলার প্রতিবাদে ব্যবসায়ীদের কর্মবিরতি

CNNWorld24
CNNWorld24 Dhaka
প্রকাশিত: 9:09 PM, February 10, 2021

আবুল কালাম আজাদ,নাটোর: নাটোরের গুরুদাসপুরে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেনের ওপর সন্ত্রাসী হামলার
প্রতিবাদে আসামীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবীতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে আধাবেলা কর্মবিরতি পালন করেছেন ব্যবসায়ীরা।

বুধবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত পৌরসদরের চাঁচকৈড় বাজারে ওই কর্মসুচী পালন করা হয়। কর্মবিরতির আয়োজক উপজেলা রড, সিমেন্ট,লৌহজাতপণ্য,প্লাষ্টিক ও মেশিনারীজ ব্যবসায়ী মালিক সমিতি।

আয়োজকসুত্রে জানা গেছে, গেল ৫ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) উপজেলার চাপিলা ইউনিয়নের রায়পুর গ্রামে পুকুর থেকে বালি উত্তোলনের ঘটনা মিমাংসার শালিসি বৈঠকে উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনের ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন ব্যবসায়ী সংগঠনের সদস্য ও উপদেষ্টা।

এদিকে একই ঘটনায় নাটোর জেলা উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে বুধবার থেকে দুই দিনের কলম বিরতি কর্মসুচীও চলমান রয়েছে ।

চেয়ারম্যানের উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার, দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি এবং ইন্ধনদাতার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থার দাবি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন- ব্যবসায়ী সংগঠনের সাধারন সম্পাদক মো. ইমরান হোসেন শাহ, জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি দিলীপ কুমার সাহা, কোষাধ্যক্ষ আব্দুল ওয়াহাব ও জাহাঙ্গীর হোসেন প্রমূখ।

ব্যবসায়ী নেতাদের দাবী,উপজেলা চেয়ারম্যান সহজ,সরল শান্তিপ্রিয় মানুষ। তার ওপর সন্ত্রাসী হামলার আসামীরা এতদিনেও অধরা এটা মেনে নেয়া যায়না।দ্রুত আসামীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি নিশ্চিত না হলে তারা আগামীতে আরো বড় ধরনের
কর্মসুচী দিতে বাধ্য হবেন।

উল্লেখ্য-উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনকে মারধরের ঘটনায় শুক্রবার রাতেই তার বোনজামাই আব্দুল মান্নান বাদি হয়ে রায়পুর এলাকার সবুর হোসেন (৫০) আয়ুব আলী (৫০) মামুনুর রশিদ (৩৬)রাজিব (২৫) তারেক হোসেন (২০) চান্দু মিয়া (৬০) মন্টু (৪২) খায়রুল (২৬) রিপন (১৮) সহ ৯জনের বিরুদ্ধে গুরুদাসপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।

অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক জানিয়েছেন,ঘটনায় অভিযুক্তদের মধ্যে সবুর হোসেনকে শুক্রবার রাতেই গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। অন্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।