লাফিয়ে লাফিয়ে দাম বাড়ছে ভোজ্যতেলের

CNNWorld24
CNNWorld24 Dhaka
প্রকাশিত: 1:22 PM, January 9, 2021

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ আমদানির ঘোষণার কারণে চালের দাম কমে গেলেও ভোজ্যতেলের বাজার অস্থির হয়ে উঠেছে। এক সপ্তাহে খোলা ও বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম ১৫ টাকায় বেড়েছে ২০ টাকা। চিনির দামও বাড়ছে।

পেঁয়াজ ও চালের পরে ভোজ্যতেলের দাম লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। সয়াবিন তেল খুচরা পর্যায়ে প্রতি লিটারে ১২৯ থেকে ১২৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, এক সপ্তাহে কয়েকগুণ বেড়েছে। বোতলজাত সয়াবিন এবং পাম তেলের দাম বেড়েছে। পাইকারদের অভিযোগ, মিল মালিকরা আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতিদিন দাম বাড়িয়ে দিচ্ছেন।

একজন পাইকার জানান, বিশ্ববাজারে দাম বেশি হওয়ায় মিল মালিকরা তেলের দাম বাড়িয়ে দিচ্ছেন। তারা প্রতি লিটারে তেলের দাম ১৫ টাকা থেকে ২০ টাকা বাড়িয়েছে।

দাম বাড়ার কারণে খুচরা বিক্রেতারা সমস্যায় পড়েছেন। অনেক ক্রেতা তেল না কিনে ফিরে যান।

এদিকে চিনির দাম বেড়েছে। চিনির দাম বেড়েছে কেজিপ্রতি ২ থেকে ৩ টাকা। তবে পেঁয়াজের দাম কমেছে। সরবরাহ বৃদ্ধি এবং ভারতীয় পেঁয়াজ আমদানির ঘোষণার সাথে, পাইকারি বাজারে দাম কমিয়ে ২৮-৩০ টাকা করেছে।

এদিকে, দাম নিয়ন্ত্রণে আমদানির ঘোষণার ধানের বাজারে কোনও প্রভাব পড়েনি। চালের দাম প্রতি কেজি ৫০ পয়সা থেকে এক টাকা নেমে এসেছে। ভারতীয় চাল বাজারে এলে দাম আরও কমবে বলে আশা করছেন পাইকাররা।

ক্রেতারা চালের কম দামের প্রত্যাশায় পাইকারি বাজারে ক্রেতাদের আনাগোনা কমে গেছে। এই পরিস্থিতিতে চাহিদার চেয়ে বেশি চাল আমদানি করা হলে তারা লোকসানের আশঙ্কা করছেন।