কৃষক আন্দোলন- চাপের মুখে বিজেপি সরকার

CNNWorld24
CNNWorld24 Dhaka
প্রকাশিত: 6:49 PM, December 6, 2020

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতের কৃষক আন্দোলন নিয়ে বিজেপি সরকার আন্তর্জাতিক চাপের মুখে  রয়েছেন। জাতিসংঘ এক বিবৃতিতে বলেছে যে কোনও গণতান্ত্রিক আন্দোলন নাগরিকের অধিকার। কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর পর এবার ব্রিটিশ সংসদের ৩৬ জন সদস্য ভারতীয় কৃষক আন্দোলন সম্পর্কে মুখ খুললেন। এদিকে, মোদি প্রশাসন কৃষকদের সাথে আলোচনা করার পরেও কোনও সমাধানে পৌঁছাতে পারেনি। কৃষকরা বিতর্কিত নতুন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে অনড় থাকলেও সরকার এটিকে সংশোধন করার প্রস্তাব দিয়েছেন।

৫ ডিসেম্বর (শনিবার) কৃষকদের অবরোধের মধ্যে বিজেপি সরকার আন্দোলনকারীদের সাথে তৃতীয় বৈঠক করেছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাসভবনে উচ্চ-স্তরের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে সরকার কর্তৃক কৃষকদের প্রতিনিধিদের কাছে লিখিত প্রস্তাব দেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে আন্দোলনকারীরা সরকারের কাছে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতির দাবি জানালেও মহাসড়ক ছাড়তে অস্বীকৃতি জানান। তারা বলছেন যে বিতর্কিত কৃষি আইন বাতিল না করা পর্যন্ত সরকারের কোনও আশ্বাস কাজ করবে না।

কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তুমার বৈঠক শেষে বলেছেন, সরকার কৃষকদের কাছে একটি নতুন প্রস্তাব দিয়েছে। তিনি আশা প্রকাশ করেন যে, বুধবারের বৈঠকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, যদিও চূড়ান্ত কোনও সমাধান হয়নি।

সরকারের সাথে বৈঠক করেও কৃষকরা তাদের আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে। তারা শনিবার রাজধানী দিল্লির মহাসড়ক অবরোধ করে। এ সময় বিক্ষোভকারীরা বিজেপি নেতাদের প্রতিমূর্তি পুড়িয়ে দেয়।

অন্যদিকে, চলমান আন্দোলন নিয়ে মোদী সরকার আন্তর্জাতিক চাপের মুখোমুখি হচ্ছে। কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর পর ভারতের কৃষক আন্দোলন নিয়ে জাতিসংঘ এক বিবৃতি দিয়েছে।

গণতান্ত্রিক আন্দোলনের কথা উল্লেখ করে জাতিসংঘের সেক্রেটারি জেনারেলের মুখপাত্র বলেছেন যে দিল্লিতে আন্দোলন যদি শান্তিপুর্ন হয় তবে তা চালিয়ে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া উচিত।

তাছাড়াও দেশের ৩৬ জন সংসদ সদস্য ৩৬ কৃষক আন্দোলন সম্পর্কে বিজেপি সরকারকে সতর্ক করতে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছেন।