কাজ ছাড়া লাখ লাখ টাকা!

Desk Reporter
Desk Reporter
প্রকাশিত: ৩:৫২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১২, ২০২২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পৃথিবীতে বেঁচে থাকার জন্য কত টাকার প্রয়োজন তা সবাই জানে। তা সত্ত্বেও, শোজি মরিমোটো, একজন ৩৬ বছর বয়সী জাপানি ব্যক্তি, বেকারত্বের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য একটি পেশা বেছে নেওয়ার বিষয়টি জেনে হতবাক হয়েছিলেন।

কারণ শোজি তার পেশায় কোনো কাজ ছাড়াই আয় করেছেন কয়েক লাখ টাকা। এবং তিনি নিজেই ভাড়া দিয়ে এটি করেছিলেন।

হ্যাঁ আল এটা আমার কাছে বেশ বাজে শোনাচ্ছে, মনে হচ্ছে বিটি আমার জন্য নয়। কিন্তু সে নিজে ভাড়া করে কি করে?

সিবিএস ইন্টারন্যাশনালের মতে, শোজি জাপানের টোকিওর বাসিন্দা। অপরিচিতরা তাকে ভাড়া করে এবং তার সাথে সময় কাটায়। আর সেজন্য শোজির কিছু করার নেই। তবে শোজি গ্রাহকদের কাছ থেকে ১০ হাজার ইয়েন (প্রায় ৮ হাজার ৪৪৪ টাকা) নিয়েছে। এছাড়াও যাতায়াত ও খাবারের খরচ আলাদাভাবে নেওয়া হয়।

এখন পর্যন্ত, শোজি ৩,০০০ এরও বেশি মানুষকে সেবা দিয়েছে। প্রতিদিন দুই থেকে তিনজন তাকে ভাড়া করে। এভাবে কয়েক লাখ টাকা আয় করেছেন তিনি। শোজি বলেন, যারা একাকীত্বে ভুগছেন তাদের সঙ্গে তিনি কথা বলেন। তাদের সাথে লাঞ্চ বা ডিনারে অংশ নিন। শোজি তাদের সাথে দেখা করে যাদের কথা শোনার জন্য কাউকে প্রয়োজন।

শোজি অবশ্য বলেছেন, একজন ব্যক্তি তাকে আত্মহত্যা করতে বলেছিলেন। কেউ কেউ তাকে ঘর পরিষ্কার করতে, কাপড় ধুতে, নগ্ন হতে, বন্ধু হতে বলে। তবে এ ধরনের কাজ তিনি একেবারেই করেন না। শুধু পেশাদারদের মত লোকেদের সাথে কথা বলুন।

বেকারত্ব থেকে মুক্তি পেতে ২০১৬ সালে এই পেশা শুরু করেন শোজি। তিনি তার পরিষেবা ‘ডু নাথিং রেন্ট-এ-ম্যান’-এর বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য টুইটারে একটি সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট খুলেছিলেন, যার এখন লক্ষ লক্ষ ফলোয়ার রয়েছে৷ শোজি বলেন, ‘মানুষের একাকীত্ব ও অনুভূতি বুঝতে পারি। তাই হয়তো তারা আমাকে ডাকবে। ‘

জাপান সরকার মানুষের মধ্যে একাকীত্ব এবং সামাজিক বিচ্ছিন্নতার সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছে। 2020 সালে আত্মহত্যার ক্রমবর্ধমান হার নিয়ে দেশটি উদ্বিগ্ন। এটি মোকাবেলা করার জন্য একাকীত্ব মন্ত্রণালয়ও তৈরি করা হয়েছিল।