ইউক্রেনে রুশ হামলায় কারখানায় আগুন-৮শ বে-সামরিক আটকা

Desk Reporter
Desk Reporter
প্রকাশিত: ৬:১৬ অপরাহ্ণ, জুন ১২, ২০২২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইউক্রেনে রুশ হামলায় কারখানায় আগুন-৮শ বে-সামরিক আটকা পড়েছে। ইউক্রেনের সেভেরোদনেৎস্ক শহরের একটি রাসায়নিক কারখানায় রুশ বাহিনীর গোলার আঘাতের পর আগুন লেগে গেছে। কারখানার ভেতরে অন্তত ৮০০ বে-সামরিক নাগরিক আটকা পড়েছে। রুশ অভিযানের তোপের মুখে প্রাণ বাঁচাতে হাজারো মানুষ দোনবাস ছাড়ছে।

তীব্র লড়াই চলছে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে। রুশ বাহিনীর মুহুর্মুহু গোলার আঘাত চলছেই সেভেরোদনেৎস্ক এই শহরে। ১১ জুন শনিবার গোলাবর্ষণের আঘাতে রেডিয়েটর থেকে কয়েক টন তেল লিক হওয়ার পর পরই  স্থানীয় একটি রাসায়নিক কারখানায়  এই আগুন লেগে যায়। আর ওই রাসায়নিক কারখানার ভেতরে ভূগর্ভস্থ আশ্রয়কেন্দ্রে ইউক্রেনের যোদ্ধাদের সঙ্গে কমপক্ষে-৮শ মানুষ আটকা পড়েছে। খবর বিবিসি।

কারখানা থেকে যোদ্ধাদের সরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা করতে অস্বীকার করেছেন রুশ বাহিনী। অবরুদ্ধ করে রেখেছে তারা প্ল্যান্টটি। দোনবাসে লড়াই তীব্র হওয়ার ফলে শহর ছেড়ে প্রাণে বাঁচতে পালিয়ে যাচ্ছেন হাজারো মানুষ। রুশ সামরিক অভিযানের মুখে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের শহরটির সব রেল ও বাস স্টেশনে এখন শুধুই মানুষের ভিড়।

অন্যদিকে নিজ শহর ছেড়ে যখন পালাচ্ছে মানুষ, তখন দখলে থাকা খেরসন ও মারিউপোল শহরের বাসিন্দাদের পাসপোর্ট দেয়া শুরু করেছেন রুশ সরকার। রাশিয়ার গণমাধ্যমের দাবি, যে ওই সব এলাকায় মানুষ রুশ নাগরিকত্ব নিতে রাজি থাকায় তাদের পাসপোর্ট দেয়া শুরু করেছেন।

তবে ইউক্রেন রাশিয়ার এমন কার্যক্রমের জন্য তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। দেশটির দাবি,বাসীন্দাদের জোর করে রাশিয়ার নাগরিক বানানো হচ্ছে, যাকিনা আঞ্চলিক অখণ্ডতার প্রকাশ্য লঙ্ঘন। একই সাথে ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রধানের কাছে রাশিয়ার ওপর আরও কঠোর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন  ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

 

অপরদিকে, চলমান যুদ্ধে এ পর্যন্ত-১০ হাজার ইউক্রেনীয় সেনা নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন কিয়েভ। ইউক্রেন সরকারের তথ্যানুসারে, এ যুদ্ধে-৩০ হাজারেরও বেশি রুশ সেনা নিহত হয়েছেন। যদিও, এ দাবিটি প্রত্যাখ্যান করেছেন রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।