রাশিয়ায় পা রাখাতেই আটক হলেন নাভালনি

CNNWorld24
CNNWorld24 Dhaka
প্রকাশিত: 8:27 AM, January 18, 2021

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ মস্কোয় পা রাখার পরই রাশিয়ার পুলিশ রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের সমালোচক আলেক্সি নাভালনিকে গ্রেপ্তার করেছে। গত গ্রীষ্মে বিষে আক্রান্ত হয়ে তিনি জার্মানিতে চিকিৎসা শেষে রবিবার প্রথমবারের মতো দেশে ফিরেছেন।

স্থগিত দণ্ডের শর্ত লঙ্ঘনের কারণে নাভালনিকে সাড়ে তিন বছরের কারাদণ্ড হতে পারে।এই পদক্ষেপ পশ্চিমা দেশগুলোর উপর রাশিয়ার উপর নতুন নিষেধাজ্ঞার চাপ আরো বাড়িয়ে দিতে পারে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এমন খবর দিয়েছে।

নাভালনি জার্মানিতে চিকিৎসা থেকে সুস্থ হয়ে গত সপ্তাহে দেশে ফিরে আসার ইচ্ছা প্রকাশ করেন।
মস্কো প্রিজন সার্ভিস তখন বলেছিল যে তিনি দেশে ফিরে আসার পরে তাকে গ্রেপ্তারের জন্য সবকিছু করা হবে। তার বিরুদ্ধে অপরাধের অভিযোগ আনা হয়েছে।

অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ২০১৪ সালে তাকে জেল দেওয়া হয়েছিল। তবে তিনি দাবি করেছেন যে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো ছিল বানোয়াট।

দেশে ফেরার পথে, ৪৪ বছর বয়সী এই রাজনীতিবিদকে হাসি-ঠাট্টা করতে দেখা গেছে। তিনি আরও বলেন যে তিনি ভয় পান না।

রাশিয়ায় আনুষ্ঠানিকভাবে প্রবেশের আগে চার জন মাস্ক পরিহিত পুলিশ কর্মকর্তা নাভালনিকে তাদের সাথে মস্কোর শেরেমেটোভো বিমানবন্দরের পাসপোর্ট নিয়ন্ত্রণ কক্ষে যেতে বললেন। তবে কেন যাবে; তারা সে ব্যাখ্যা দেয়নি।

“আমি জানি আমি সঠিক পথে আছি,” পুতিনবিরোধী এই নেতা বন্দী হওয়ার আগেই বিমানবন্দরে সমর্থকদের বলেছিলেন। আমি কিছুতেই ভয় পাই না।

গত বছরের আগস্টে সার্বিয়া থেকে মস্কোর ঘরোয়া ফ্লাইটে এক কাপ চা পান করার পরে ৪৪ বছর বয়সী নাভাল্নি অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন এবং কোমায় পড়েছিলেন। বিমানবন্দর থেকে তাকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তার অবস্থার পরিবর্তন না হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য জার্মানি নেওয়া হয়েছিল। পরীক্ষা অনুসারে, সোভিয়েত আমলে তৈরি বিষাক্ত নার্ভ এজেন্টের সাহায্যে তাকে হত্যা করার চেষ্টা করা হয়েছিল।

নাভালনি এবং তার সমর্থকরা অভিযোগ করেছেন যে রাশিয়ার সরকার, বিশেষত রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন তাকে হত্যা করার জন্য রাসায়নিক বিষ প্রয়োগ করেছিল।