মদিনায় ১০ লাখ ওমরাহযাত্রী এক মাসে!

Desk Reporter
Desk Reporter
প্রকাশিত: ৮:১৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৩, ২০২২

এক মাসে মদীনায় ১০ লাখ ওমরাহ তীর্থযাত্রা পবিত্র মসজিদে নববী (সা.)।
হিজরি নববর্ষের প্রথম মাসে ১০ লাখ হজযাত্রী ওমরাহ করতে মদিনায় পৌঁছেছেন। তারা গত মাসে মদিনার প্রিন্স মোহাম্মদ বিন আবদুল আজিজ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান।

সৌদি বার্তা সংস্থা এসপিএ এ তথ্য জানিয়েছে।

আরব নিউজের মতে, ৩০ জুলাই থেকে ৩০ আগস্ট পর্যন্ত মদিনা বিমানবন্দরে ১ লাখ এক হাজার ১০৯ জন হজযাত্রী এসেছেন।

এর মধ্যে ২৬৮,৫২৯ জন ওমরা তীর্থযাত্রী বিমানপথে সৌদি আরবে এবং ২৯,৬৮৯ জন ওমরা তীর্থযাত্রী স্থলপথে সৌদি আরবে পৌঁছেছেন।

হজ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ওমরাহ তীর্থযাত্রী ইন্দোনেশিয়া থেকে এসেছেন। দেশ থেকে এক লাখ ২৭ হাজার ৭৮৯ ওমরাহযাত্রী এসেছেন। এছাড়া পাকিস্তান থেকে ৯০ হাজার ২৫৩ জন, ভারত থেকে ৫৪ হাজার ২৮৭ জন, ইরাক থেকে ৩৬ হাজার ৪৫৭ জন, ইয়েমেন থেকে ২২ হাজার ২২৪ জন এবং জর্ডান থেকে ১২ হাজার ৯৫৯ জন হজযাত্রী এসেছেন।

করোনার দীর্ঘ দুই বছর পর গত ২ আগস্ট পবিত্র কাবার চারপাশে স্থাপিত নিরাপত্তা বেষ্টনী অপসারণ করা হয়। ফলে মুসল্লিরা সরাসরি পবিত্র কাবার দেয়াল ও হাজরে আসওয়াদ বা বরকতময় কালো পাথর স্পর্শ করছেন। করোনার বিস্তার ঠেকাতে এবং উপাসকদের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে ২০২০ সালের জুলাই মাসে এই বেড়া দেওয়া হয়েছিল। এ সময় মুসল্লিরা কাবা ও আসওয়াদ বা কালো পাথর স্পর্শ বা চুম্বন করতে পারত না।

৮ জুলাই পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হয়। এ বছরে ১০ লাখ হজযাত্রী হজ করেছেন। ২০২১ সালে ৫৮ হাজার ৭৪৫ জন হজ করেছেন।  সালে কঠোর বিধিনিষেধ মেনে হজ করেছেন ১০ হাজার মানুষ। মহামারীর আগে, ২ মিলিয়নেরও বেশি মানুষ হজ করতেন।
২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২০, সৌদি আরব করোনা মহামারী প্রাদুর্ভাবের পর প্রথমবারের মতো সতর্কতামূলক কঠোর নিষেধাজ্ঞা জারি করে। সে সময় ওমরাহ পালনসহ প্রতিদিনের নামাজের ওপর সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। পরবর্তীতে ধাপে ধাপে সীমিত পরিসরে ওমরাহ ও হজ কার্যক্রমের ব্যবস্থা করা হয়।

আরও পড়ুন