৮৫ বছর বৃদ্ধের সাথে শিশুর বিয়ে-তদন্ত প্রতিবেদন চেয়েছে হাইকোর্ট

CNNWorld24
CNNWorld24 Dhaka
প্রকাশিত: 6:40 PM, November 24, 2020

আইন আদালতঃ জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জের গ্রামীণ সালিশে এক ৮৫ বছর বয়সী বৃদ্ধের সাথে ১২ বছর বয়সী শিশুর বিবাহের তদন্ত প্রতিবেদন চেয়েছেন হাইকোর্ট।

জামালপুরের জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও দেওয়ানগঞ্জের অফিসার ইনচার্জকে আগামী রবিবারের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

মঙ্গলবার প্রকাশিত সংবাদ প্রকাশের পরে বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি শাহেদ নুরুদ্দিনের একটি বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এবিএম আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদটি লক্ষ্য করেছেন।

পরে আল-মাহমুদ বাশার বলেছিলেন, “জামালপুরে একটি ৮৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তির সাথে একটি ১২ বছর বয়সী শিশুকে বিয়ে করার ঘটনাটি বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। আমরা এটাই খুঁজছিলাম।

আদালত জামালপুর জেলা প্রশাসককে নির্দেশ দিয়েছন -পুলিশ সুপার ও দেওয়ানগঞ্জ ওসিকে ঘটনাটি তদন্ত করতে এবং আগামী রবিবারের মধ্যে একটি প্রতিবেদন দাখিল করার জন্য। একই সাথে তিনি তাদের আইনগত দায়িত্ব পালনের জন্য বলেছেন।

তিনি বলেছেন, “গ্রাম সালিশের মাধ্যমে স্থানীয় জন প্রতিনিধি এবং মাতবররা ৮৫ বছর বয়সী এই বৃদ্ধকে পিটিয়ে মেরে ফেলার উপক্রম করেছিল এবং শিশুটিকে বিয়ে করতে বাধ্য করেছিল। এটি সম্পূর্ণ অবৈধ।” আগামী রবিবার রিপোর্টটি দেখে আদালত প্রয়োজনীয় আদেশ দেবেন।

স্থানীয়দের মতে, গ্রাম সালিশে অপরাধের জন্য বৃদ্ধ লোকের নাতির শাহিন (১৮) ‘র অপরাধের দায়ভারে দাদাকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়। সালিশে, বৃদ্ধ মোহিরকে ১০ দোররা মারধর করে হয়েছিল এবং তার সাথে ১২ বছরের শিশুকে বিয়ে করতে বাধ্য করা হয়েছিল।