বাদামের পাঁচটি গুণাবলী

CNNWorld24
CNNWorld24 Dhaka
প্রকাশিত: 4:46 PM, December 26, 2020

 

বাদামের পাঁচটি গুণাবলীঃ আমরা অনেকেই বাদাম খেতে পছন্দ করি।কিন্তু নিয়ম করে খাওয়া হয়ে উঠে না।প্রতিদিন খাবারের তালিকায় বাদাম রাখার অভ্যাস করুন। যা আপনার শরিরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলবে।

১. রোগের ঝুঁকি হ্রাস করে: বাদামে ভিটামিন ই রয়েছে যা আপনার প্রতিদিনের ডায়েটে ভিটামিন ই এর ৪৮ শতাংশের উৎস হতে পারে। এই ভিটামিন ক্যান্সার বা হৃদরোগ সহ অনেক জটিল রোগের বিরুদ্ধে কাজ করে।

২. হাড়ের শক্তি বৃদ্ধি করে: অধ্যয়নগুলি দেখায় যে কেবল কয়েকটি মুষ্টি বাদাম ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, ভিটামিন কে, প্রোটিন, দস্তা ইত্যাদি সরবরাহ করে এবং এগুলি হাড়ের স্বাস্থ্য বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

৩. ওজন হ্রাস করতে সহায়তা করে: আপনি যদি ওজন হ্রাস করতে আগ্রহী হন তবে আপনাকে অবশ্যই আপনার ডায়েটে বাদাম অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। বাদামে ফাইবার এবং প্রোটিন থাকে যা আপনাকে দীর্ঘকাল অনিয়ন্ত্রিত খাবার খাওয়া থেকে বিরত রাখে যা ওজন বাড়ানোর একটি বড় কারণ।

৪) মন ভাল রাখতে সহায়তা করে: বাদামে এক ধরণের অ্যামাইনো অ্যাসিড থাকে যাকে ট্রাইপটোফেন বলে, যা মনকে ভাল রাখতে সহায়তা করে। কলা বা অনুরূপ ফলগুলোতে ভিটামিন বি -৬ রয়েছে যা বাদামে অ্যামিনো অ্যাসিডের সাথে মিশে সেরোটোনিনে রূপান্তরিত করে এবং সেরোটোনিন এনার্জি বুস্টার হিসাবে কাজ করে। এটি উদ্বেগ কমায়।

৫. চিনির মাত্রা বজায় রাখে: ডায়াবেটিস রোগীরা প্রায়শই ম্যাগনেসিয়ামের ঘাটতিতে ভোগেন। একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে যে দিনে ৬০ গ্রাম বাদাম খাওয়া মাত্র ১২ দিনের মধ্যে অবিশ্বাস্য প্রতিক্রিয়া জানায়।

বাদাম খাওয়ার সঠিক সময়:

বাদাম থেকে পর্যাপ্ত ভিটামিন পেতে বিশেষজ্ঞরা সাধারণত সকালে খাওয়ার পরামর্শ দেন। প্রাতঃরাশের সাথে বাদাম খাওয়া রক্তে শর্করাকে নিয়ন্ত্রণ করতে সহায়তা করে।