নেতাকর্মীদের অপপ্রচারকারীদের বিরুদ্ধে জবাব দিতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী

Desk Reporter
Desk Reporter
প্রকাশিত: ১০:০০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৯, ২০২১

নিউজ ডেস্ক:  দেশের ব্যাপক উন্নয়নের পরও যারা দেশে-বিদেশে অপপ্রচার চালাচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে দলের নেতা-কর্মীদের সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে শেখ হাসিনা বলেন, এত উন্নয়নের পরও কিছু লোক দেশে বিদেশে অপপ্রচার চালাচ্ছে। তাদের সম্পর্কে সচেতন হতে হবে এবং অপপ্রচারের জবাব দিতে হবে।

‘ শুক্রবার বিকেলে তার সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে সভাপতিত্বকালে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। তিনি বলেন, “কিছু লোক মিটিং করছে। আওয়ামী লীগকে কিভাবে ক্ষমতা থেকে সরানো যায়,” তিনি বলেন, “জনগণের শক্তিই আওয়ামী লীগের শক্তি।” আমরা জনগণের সেবায় কাজ করে যাচ্ছি।

” প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এখন বিশ্বের শীর্ষস্থানে পৌঁছেছে। আমরা জনগণের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছি। গ্রামে গ্রামে পৌঁছেছে উন্নয়নের ছোঁয়া। উন্নয়নের ছোঁয়া পেয়েছে সব শ্রেণি-পেশার মানুষ।

শেখ হাসিনা নিজেসহ দলের আরও কয়েকজনের নাম উল্লেখ করে তাদের ওপর নির্যাতনের কথা তুলে ধরেন। “আমার মনে হয় না এখানে এমন কেউ আছে যাকে নির্যাতন করা হয়নি,” তিনি বলেন।

এভাবে তারা জুলুম করেছে। কিন্তু আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর তাদের নির্যাতন বা বন্ধ করা হয়নি। আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি। আমি জনগণের ভোটে বিশ্বাস করি। আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, ২০০৮ সালের নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হয়েছে। এই নির্বাচনকে কেউ প্রশ্ন করেনি। ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দুই তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় আসে। দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে আওয়ামী লীগ যে কাজ করেছে তার ফলে জনগণ আমাদের ওপর আস্থা ও আস্থা রেখেছে।

আমাদের ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। কিন্তু সেই ভোটে বাধা দেওয়ার নামে মানুষ পুড়িয়ে তারা কী করেছে, তা দেশের মানুষ কীভাবে ভুলবে? নির্বাচনের আগে তারা একে অপরকে নির্যাতন করেছে। বলেছেন- নির্বাচন করবে না। তারা দেখাতে চেয়েছে নির্বাচনে অংশ নেয়নি। এটাই ছিল তাদের উদ্দেশ্য।