গ্রাম পুলিশদের ৫ দফার দাবিতে মানববন্ধন

CNNWorld24
CNNWorld24 Dhaka
প্রকাশিত: 3:22 PM, January 2, 2021

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশ গ্রাম পুলিশের পদের মর্যাদা প্রতিষ্ঠার জন্য বাংলাদেশ গ্রাম পুলিশ কর্মচারী ইউনিয়ন (বিআরপিইইউ) বর্তমান বাজারের হারের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে এবং জাতীয় বেতনের অন্তর্ভুক্ত করার জন্য পাঁচ দফা দাবি করেছে।

শনিবার (২ জানুয়ারী) সকাল সাড়ে এগারোটায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ গ্রাম পুলিশ কর্মচারী ইউনিয়ন আয়োজিত মানববন্ধনে এই দাবি জানানো হয়।

বক্তারা  তাদের ভাষণে বলেন, “গত ৫০ বছরে বাংলাদেশের ক্ষমতা অনেকবার পরিবর্তিত হয়েছে। ক্ষমতার পরিবর্তন সত্ত্বেও কেউ আমাদের দিকে ফিরে তাকাতে পারেনি। প্রায় ৪০ বছর ধরে আমাদের জীবন এভাবেই কেটেছে। আমরা বাঁচতে চাই মর্যাদার সাথে মানুষের মত। ” গত দেড় দশক ধরে বলা চলে যে বাংলাদেশ কাতারের মতো উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়েছে। এই সত্যটি স্বীকার করে আমরা, গ্রাম পুলিশ, আয়ের লোকজন কম-বেশি প্রচার করতে পারিনি: মজুরি ও ভাতা আমাদের জীবনকে বিষিয়ে তুলেছে।

বক্তারা বলেছিলেন, “বর্তমান আকাশ ছোঁয়া বাজারমূল্যের কারণে একটি পরিবার একজন দফাদারের জন্য ৭ হাজার এবং মহলদারের জন্য ৬ হাজার ৫ শত টাকায় চলতে পারে না।” নির্ধারিত বেতন এবং ভাতা ছাড়াও রেশন ও চিকিৎসা সহ অন্যান্য কোনও সুবিধা নেই, যদিও আমরা সরকারী অংশ পাই, অনেক ক্ষেত্রে আমরা ইউনিয়ন পরিষদ প্রদত্ত শেয়ার এবং ভ্রমণ ভাতা পাই না। ’

এই পরিস্থিতিতে সংগঠনের নেতারা গ্রাম পুলিশের মর্যাদা প্রতিষ্ঠার জন্য পাঁচ দফা দাবি মানতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

সংস্থার দাবিগুলো: গ্রাম পুলিশদের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নের জন্য তাদের বাজারের হারের সাথে সামঞ্জস্য করতে হবে এবং জাতীয় বেতন স্কেলের অন্তর্ভুক্ত করা করতে হবে। সরকারকে অন্যান্য বাহিনীর মতো রেশন ব্যবস্থা করতে হবে। গ্রাম পুলিশকে ঝুঁকি ও চিকিৎসা ভাতার ব্যবস্থা করতে হবে। ইউনিয়ন পরিষদকে গ্রাম পুলিশের প্রশাসনিক ইউনিট হিসাবে ঘোষণা করতে হবে। দফাদারকে এককালীন অবসর ভাতা ঠিক করতে হবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি বাবু ভবেন্দ্রনাথ বিশ্বাস। এছাড়াও সাংগঠনিক সম্পাদক বাবু সত্য নাথাস দাস, আনসার উদ্দিন, তসলিমা আক্তার মায়া প্রমুখ নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।