শীতকালীন অধিবেশনও হচ্ছে সংক্ষিপ্ত

CNNWorld24
CNNWorld24 Dhaka
প্রকাশিত: 3:08 PM, January 14, 2021

কোবিড-১৯ করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে জাতীয় সংসদে চলতি বছরের প্রথম অধিবেশন অর্থাৎ শীতকালীন অধিবেশনও সংক্ষিপ্ত করা হচ্ছে। আর এ অধিবেশনটি মাত্র ১২ থেকে ১৪ কার্যদিবস চলতে পারে। এ ছাড়াও এ অধিবেশনেও যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত সংখ্যক সাংসদ এতে অংশ নেবেন।

(১৮ জানুয়ারি) আগামী সোমবার  শীতকালীন অধিবেশন শুরু হচ্ছে। সংসদের রিতী  অনুযায়ী প্রতি বছরের ন্যায় ওই দিন রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ সরকারের কার্যক্রম তুলে ধরে ভাষণ দেবেন। পরে রাষ্ট্রপতির ভাষণের উপর ধণ্যবাদ জানিয়ে সংসদে আনিত প্রস্তাবের ওপরের আলোচনা  হবে।

বরাবরই সংসদে শীতকালীন অধিবেশনগুলো ধীর্ঘ হয়। বছরের প্রথম এই অধিবেশন ৩০ থেকে ৩৫ কার্যদিবস চলে। তবে করোনা পরিস্থিতির কারণে এবারের অধিবেশন সংক্ষিপ্ত হচ্ছে। ১২- ১৪ কার্যদিবস চলতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। গত ৩০ ডিসেম্বর রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ আব্দুল হামিদ জাতীয় সংসদের এ অধিবেশন আহ্বান করেছেন।

গত বাজেট অধিবেশন এবং মুজিববর্ষের বিশেষ অধিবেশনের মতো এবারের অধিবেশনেও সাংসদদের  করোনা পরীক্ষা করে যাদের  রিপোর্ট নেগেটিভ আসবে তারাই শুধু অংশ নিতে পারবেন।

অধিবেশন শুরু হওয়ার-২ দিন আগেই সাংসদদের  করোনা পরীক্ষা  হবে। প্রথম দিন রাষ্ট্রপতির ভাষণ থাকায় ওই দিন সকল সাংসদরা  অধিবেশনে অংশ নিতে পারবেন। এর পরে প্রতিদিন ৭০/৮০ জনের উপস্থিতির টার্গেট রেখে সর্বোচ্চ ৯০ জনসসাংসদকে অধিবেশনে অংশ নিতে আমন্ত্রণ জানানো হবে। প্রত্যেক কার্যদিবসের জন্য সাংসদদের  তালিকা করে পর্যায়ক্রমে তাদের আমন্ত্রণ জানানো হবে। সংশ্লিষ্টরা আরও জানান করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করার লক্ষ্যেই এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে ।

এর আগে গত বছর  সংসদে ২০২০-২০২১ সালের অর্থ বছরের বাজেট অধিবেশন এবং এর পর মুজিববর্ষ উপলক্ষে ডাকা সংসদের বিশেষ অধিবেশনও সংক্ষিপ্ত ছিল। সে সময়ও স্বাস্থ্যবিধি মেনেই প্রতি কার্যদিবসে সীমিত  সাংসদরা পর্যায়ক্রমে অধিবেশনে অংশ নেন। ওই সময়ও অধিবেশনের আগে সকল সাংসদদেরকে কোবিড-১৯ করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করানো হয়।
এবারও সংসদ অধিবেশনের সংবাদ কাভার দিতে সাংবাদিকরা একদিন সংসদ ভবনে প্রবেশ করতে পারবেন।

তবে প্রথম দিন রাষ্ট্রপতির ভাষণের সময় সংসদে  যাওয়ার অনুমতি পাবেন সাংবাদিকরা। এর জন্য প্রত্যেক মিডিয়া থেকে একজন রিপোর্টারকে অধিবেশন শুরুর আগে জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের ব্যবস্থাপনায় করোনা পরীক্ষা করতে বলা হবে।  রিপোর্ট নেগেটিভরাই আসবে  কেবল  প্রথম দিন অধিবেশন কাভার করতে সংসদ ভবনে। এর পর সংসদের এ শীতকালীন অধিবেশনও সংসদ টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার থেকে সংবাদ কাভার করতে হবে।

এ বিষয়ে সংসদের চিফ হুইপ নুর-ই আলম চৌধুরী লিটন জানান, করোনা পরিস্থিতির কারণে ১২ থেকে ১৪ কার্যদিবস অধিবেশন চালানো হতে পারে এবং অধিবেশন শুরুর আগে এবার সাংসদদের করোনা পরীক্ষা করানোর হবে। প্রথম দিন রাষ্ট্রপতি ভাষণ দেবেন। সে কারণে ওই দিন সকলে অংশ নিতে পারবেন।  পরে প্রতি কার্যদিবসে সর্বোচ্চ ৯০ জনকে  আমন্ত্রণ জানানো হবে। আর টার্গেট থাকবে প্রতিদিন ৭০/৮০ জন সাংসদদের  উপস্থিতির।