এখন ২৪ ঘণ্টা নজরদারিতে সোশ্যাল মিডিয়া!

Desk Reporter
Desk Reporter
প্রকাশিত: ১১:০৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১১, ২০২১

আইটি ডেস্ক: বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) সোশ্যাল মিডিয়া এবং ওয়েবসাইটে ‘আপত্তিকর’ বিষয়বস্তু অপসারণ এবং চব্বিশ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণের জন্য একটি বিশেষ সেল গঠন করেছে। নিয়ন্ত্রক সংস্থার চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার বলেন, ফেসবুক এবং অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং ইন্টারনেট দিনে ২৪ঘণ্টা পর্যবেক্ষণ করা হবে। এতে ভাইরাল হওয়া কোনও নেতিবাচক লিঙ্ক বা কনটেন্ট দ্রুত সরিয়ে ফেলতে সহায়তা করবে। টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি নবগঠিত সাইবার সিকিউরিটি সেলের মাধ্যমে ওয়েবসাইট এবং সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ‘সরকারবিরোধী ও রাষ্ট্রবিরোধী’সহ বিভিন্ন ধরনের ‘আপত্তিকর’ বিষয়বস্তুর ওপর নজর রাখতে চায়।

এছাড়া সামাজিক, রাজনৈতিক, অশ্লীল, সাংস্কৃতিক বা ধর্মীয় বিষয়ে উস্কানিমূলক ও চরমপন্থী বিষয়বস্তুর ওপর নজরদারি করার জন্যও এ সেল কাজ করবে। এর আগে, বিটিআরসি আইন প্রয়োগকারী সংস্থা, গোয়েন্দা সংস্থা এবং বিভিন্ন সরকারি সংস্থার বিরুদ্ধে নিয়মিতভাবে “আপত্তিকর” বিষয়বস্তু অপসারণের অনুরোধ করার জন্য ব্যবস্থা নিয়েছিল। এখন থেকে এই সেলের মাধ্যমে স্ব-উদ্যোগে পদক্ষেপ নেওয়া হবে। প্রাথমিকভাবে কাজ শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন কমিশনের চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার।

তিনি বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সহ সাইবার জগতের কনটেন্ট পর্যবেক্ষণ ও পরিচালনার জন্য একটি ‘সাইবার সিকিউরিটি সেল’ গঠন করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে আমরা কাজ শুরু করেছি। সেল খুব শীঘ্রই ২৪ ঘন্টা কাজ শুরু করবে। ‘

সেল পরিচালনায় যদি কোন বিশেষ প্রযুক্তির প্রয়োজন হয়, আমরা ভবিষ্যতে এই উদ্যোগ নেব, কিন্তু এই প্রযুক্তিগুলো বেশি ব্যয়বহুল হবে না। তিনি আরও বলেন যে আমরা পুরো কাজটি খুব সহজেই শুরু করতে পারি।

উল্লেখ্য, গত এক বছরে বাংলাদেশ সরকার ১৮ হাজার ৮৩৬টি ‘আপত্তিকর’ ফেসবুক লিঙ্ক বন্ধ করার অনুরোধ জানান। এর মধ্যে চার হাজার ৮৮৮টি লিঙ্ক বন্ধ করা হয়েছে। ৬২ টি ক্ষেত্রে, ইউটিউব কর্তৃপক্ষ ৪৩১ টি ইউটিউব লিঙ্ক ব্লক করার অনুরোধে সাড়া দিয়েছে।