ইতিহাসের বিরলতম চন্দ্রগ্রহণ ঘটতে যাচ্ছে আজ

Desk Reporter
Desk Reporter
প্রকাশিত: ১১:০৭ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৯, ২০২১

অনলাইন ডেস্ক: চন্দ্রগ্রহণের ইতিহাসে বিরলতম চন্দ্রগ্রহণ ঘটতে যাচ্ছে আজ শুক্রবার, পূর্ণিমার দিনে। ৫৮০ বছরের এই দিনে, দীর্ঘতম খণ্ডগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ দেখা যাবে যা টানা তিন ঘন্টা ২৮ মিনিট ২৩ সেকেন্ড স্থায়ী হবে। চাঁদের রং হবে রক্তের মতো লাল। তাই একে ‘ব্লাড মুন’ বা ‘বিভার মুন’ও বলা হয়। খণ্ডগ্রাস হলেও চন্দ্রগ্রহণের ৯৭ শতাংশই গ্রহণ হবে চাঁদের। আকাশ পরিষ্কার থাকলে বাংলাদেশের আকাশের কোথাও আংশিকভাবে এই গ্রহন দেখা যাবে। তবে চলতি শতাব্দীতে আকাশে এমন দৃশ্য আর দেখা যাবে না।

একটি আংশিক চন্দ্রগ্রহণ ছয় ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে চলবে, যা গত ৫৮০ বছরের মধ্যে দীর্ঘতম সময়। আংশিক চন্দ্রগ্রহণের সময় চাঁদ অনেক বেশি লাল হবে। যাইহোক, একটি পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ তিন ঘন্টা, ২৮ মিনিট এবং ২৩ সেকেন্ড স্থায়ী হবে। শুক্রবার বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টা ১৯ মিনিটে মূল চন্দ্রগ্রহণ শুরু হবে। এই চন্দ্রগ্রহণ উত্তর আমেরিকা থেকে সবচেয়ে বেশি দেখা যাবে’এছাড়াও দক্ষিণ আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া এবং এশিয়া থেকেও চন্দ্রগ্রহণ দেখা যাবে কিছুটা।

বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদপ্তর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, আকাশ পরিষ্কার থাকলে চন্দ্রোদয়ের সময় থেকে সূর্যগ্রহণের শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশে আংশিকভাবে দৃশ্যমান হবে। সেক্ষেত্রে ঢাকা থেকে বিকেল ৫টা ১৩ মিনিট ৪২ সেকেন্ড থেকে ছয়টা পাঁচ মিনিট ৩০ সেকেন্ড পর্যন্ত দেখা যাবে।

চলতি বছরের সর্বশেষ ও দ্বিতীয় চন্দ্রগ্রহণ ঘটতে যাচ্ছে শুক্রবার। প্রথমটি ২৬ মে দেখা গিয়েছিল। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ডিয়ানার বাটলার ইউনিভার্সিটির হলকম্ব অবজারভেটরি অনুসারে শুক্রবার চীন এবং জাপান সহ পূর্ব এশিয়া জুড়ে এই চন্দ্রগ্রহণ দেখা যাবে। এছাড়াও উত্তর ইউরোপ, উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকা এবং প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশগুলোতেও দেখা যাবে।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আকাশ পরিষ্কার থাকলে বিকেল ৫টা ৫ মিনিট থেকে ১৮টা পর্যন্ত ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আংশিক চন্দ্রগ্রহণ দেখা যাবে। .

যখন সূর্য, পৃথিবী এবং চাঁদ একই সরলরেখায় চলে তখন চন্দ্রগ্রহণ হয়। পৃথিবী সূর্য ও চাঁদের মাঝখানে চলে আসে। তখন সূর্যের আলো পৃথিবীতে আটকে যায় এবং চাঁদের উপরে পড়তে পারে না। যেহেতু চাঁদ সূর্যের আলো দ্বারা আলোকিত, তাই পৃথিবী দ্বারা সূর্যালোক অবরুদ্ধ হলে একটি চন্দ্রগ্রহণ ঘটে। চন্দ্রগ্রহণের সময় আমরা চাঁদের পিঠে পৃথিবীর ছায়া দেখতে পাই।

তবে চন্দ্রগ্রহণের সময় চাঁদ পুরোপুরি অন্ধকার হয়ে যায় না; পৃথিবীর বায়ুমণ্ডল দিয়ে কিছু আলো চাঁদের উপর পড়ে। তারপর এটি একটি খুব লাল আকৃতি নেয়। বিজ্ঞানীরা বলছেন, এই চন্দ্রগ্রহণের সময় চাঁদের প্রায় ৯৭ শতাংশই ঢেকে যাবে পৃথিবীর ছায়ায়।