বয়ঃসন্ধিকালে যে গ্রামের মেয়েরা ছেলে হয়ে যায়!

Desk Reporter
Desk Reporter
প্রকাশিত: ৮:১৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২১, ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ডোমিনিকান রিপাবলিকের একটি ছোট গ্রাম সালিনাস। এই গ্রামের শিশুরা জন্মের পর স্বাভাবিকভাবে বেড়ে ওঠে। কিন্তু একটা নির্দিষ্ট সময় পর এই গ্রামের অধিকাংশ মেয়েদের শরীরে ছেলেদের লক্ষণ দেখাতে শুরু করে। মার্কিন সংবাদমাধ্যম এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গ্রামবাসীদের অনেকেই বিশ্বাস করতেন যে গ্রামে একটি পুরানো অভিশাপ ছিল। যে কারণে এমন ঘটনা ঘটছে। তবে এটি কোনো অভিশাপ নয়, বৈজ্ঞানিক কারণে প্রকৃতির এই অদ্ভুত ঘটনা ঘটছে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, গ্রামের অনেক শিশু ফাইভ আলফা রিডাক্টেজের ডেফিসিয়েন্সি ঘাটতি নামক বিরল জেনেটিক রোগে ভুগছে। ফাইভ আলফা রিডাক্টেস মানবদেহে একটি এনজাইম। এই এনজাইমের ঘাটতি হলে এটি ঘটে।

চিকিৎসকরা বলছেন, শরীরে এই এনজাইম তৈরির নির্দেশনা বহনকারী জিনের সমস্যা থাকলে এই এনজাইম সঠিক পরিমাণে তৈরি হয় না।

ফাইভ আলফা রিডাক্টেসের কাজ হল নারীদেহে পুরুষ হরমোন টেস্টোস্টেরনকে ডিহাইড্রোটেস্টোস্টেরনে রূপান্তরিত করা।

এটি নারীদেহে স্বাভাবিক জৈবিক কাজ। ফলে পুরুষের বৈশিষ্ট্য প্রকাশ পায় না এবং ব্যক্তিকে স্ত্রী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়।
কিন্তু এই এনজাইমের ঘাটতি টেস্টোস্টেরনকে ডিহাইড্রোটেস্টোস্টেরনে রূপান্তরিত করে এর জৈবিক কাজকে ব্যাহত করে এবং শরীরে টেস্টোস্টেরন হরমোনের উপস্থিতির জন্য পুরুষ বৈশিষ্ট্য প্রকাশ করে।

এই বিরল জেনেটিক ডিসঅর্ডারটি এমন লোকেদের মধ্যে পাওয়া গেছে যারা জেনেটিকালি পুরুষালি হওয়া সত্ত্বেও বয়ঃসন্ধিকাল পর্যন্ত পুরুষত্বের বৈশিষ্ট্য (যেমন পুরুষের লিঙ্গ বৃদ্ধি, পেশী গঠন ইত্যাদি) দেখা যায় না। এরপর ধীরে ধীরে প্রকাশিত হতে থাকে।

স্যালিনাস গ্রামে এই বিরল জেনেটিক রোগের প্রকোপ পৃথিবীর অন্যান্য অঞ্চলের তুলনায় তুলনামূলকভাবে বেশি। প্রতি ৯০ শিশুর মধ্যে একজন সংক্রামিত হয়। স্যালিনাসে এই রোগের বিস্তারের রহস্য এখনও অজানা।