বিটিভিতে এইচডি সম্প্রচারের ৫৬তম বছরে

Desk Reporter
Desk Reporter
প্রকাশিত: ১২:০২ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৬, ২০২১

বাংলাদেশ টেলিভিশনের (বিটিভি) ৫৬তম বর্ষের এইচডি সম্প্রচার অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ।

বাংলাদেশ টেলিভিশনের ৫৬ বছর পূর্তি উপলক্ষে শনিবার (২৫ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় রামপুরার বিটিভি ভবনে এইচডি সম্প্রচারের উদ্বোধন করা হয়।

ড. হাসান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশ টেলিভিশন ১৯৭৪ সালে যাত্রা শুরু করে। এটি উপমহাদেশ এবং সমগ্র বিশ্বের প্রথম বাংলা ভাষার টিভি চ্যানেল। আমাদের পরে ভারতেও টেলিভিশনের প্রচলন হয়। তাই বিটিভি একটি প্রাচীন টিভি চ্যানেল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখন দেশে ৪৫টি টিভি চ্যানেলের লাইসেন্স দিয়েছেন। এর মধ্যে ৩১টি চ্যানেল সম্প্রচারের অপেক্ষায় রয়েছে, বাকিগুলো সম্প্রচারের অপেক্ষায় রয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে যারা বেসরকারি টেলিভিশন চালাচ্ছেন, তাদের অনেকেই বাংলাদেশ টেলিভিশনে হাতকড়া পরা আছে। সেজন্য বিটিভি হল টেলিভিশন চ্যানেলের আবাসস্থল। এখন বিটিভির চারটি চ্যানেল রয়েছে এবং আমরা আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে আরও ৬টি চ্যানেল চালু করতে যাচ্ছি। বিটিভি, বিটিভি চট্টগ্রাম ও সংসদ বিটিভি তিনটি টেরিস্ট্রিয়াল চ্যানেল ছাড়া কেবল নেটওয়ার্ক এবং ক্যাবল নেটওয়ার্ক সারা দেশে দেখা যায়। একই সঙ্গে বিশ্বের সবাই মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে দেখতে পারবেন।

তিনি বলেন, দেশ গড়তে ও জঘন্য বাংলার সংস্কৃতি লালন করার জন্য বিটিভিতে বিভিন্ন অনুষ্ঠান প্রচারিত হয়েছে। এইচডি সম্প্রচার চালুসহ বিটিভিকে আরও এগিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে সবার।

পরে মন্ত্রী বাংলাদেশ টেলিভিশন ৫৬ বছরে পদার্পণ উপলক্ষে বিটিভি ভবনে বঙ্গবন্ধু কর্নার, রংতুলিতে বঙ্গবন্ধু পেইন্টিং ও এইচডি সম্প্রচার উদ্বোধন করেন।

বিটিভির মহাপরিচালক সোহরাব হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন তথ্য ও সম্প্রচার সচিব মোহাম্মদ মকবুল হোসেন। মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট দপ্তর প্রধানগণ, বিটিভির সাবেক মহাপরিচালক ড. হামিদ প্রমুখ অংশ নেন।