হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর কাদের

Desk Reporter
Desk Reporter
প্রকাশিত: ৩:৩৯ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৬, ২০২১

হাসপাতালে ১২ দিনের চিকিৎসা কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

রোববার (২৬ ডিসেম্বর) হাসপাতাল থেকে সরাসরি সচিবালয়ে একটি অনুষ্ঠানে কার্যত যোগ দেন তিনি।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমি ১২ দিন হাসপাতালে ছিলাম। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে বাসায় না গিয়ে সরাসরি কর্মসূচিতে যোগ দিলাম। এই দ্বারা আমি কতটা আমি এই প্রোগ্রাম মূল্য মানে.

ঢাকা নগর পরিবহনের বাস রুট পাইলটিং উদ্বোধন করে সেতুমন্ত্রী বলেন, আমরা দেশের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার অনেক উন্নয়ন করেছি। সমতল থেকে পাহাড়ে এটি একটি বৈপ্লবিক পরিবর্তন। লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী আগামী বছর নির্দিষ্ট সময়ে পদ্মা সেতু উদ্বোধন করা হবে। মেট্রোরেল, বাস র‌্যাপিড ট্রানজিটসহ বেশ কয়েকটি মেগা প্রকল্প উদ্বোধন করা হবে। ব্যাপক পরিকাঠামো উন্নয়ন হলেও স্বস্তি পাচ্ছি না। আমরা যতই উন্নয়ন করি না কেন, জনগণ সফল না হলে স্বস্তি নেই।

তিনি আরও বলেন, আমাদের সমস্যা সড়কের শৃঙ্খলা। সড়কে শৃঙ্খলা না থাকলে যতই উন্নয়ন হোক না কেন আমরা সফলতা পাব না। এই চ্যালেঞ্জ কাটিয়ে উঠতে না পারলে জনগণ উন্নয়নের সুফল পাবে না। মালিক-শ্রমিক সবার সহযোগিতা চাই। তারা সহযোগিতা না করলে এই চ্যালেঞ্জ কাটিয়ে ওঠা সম্ভব নয়।

তিনি বলেন, যানজটপ্রবণ ঢাকা মহানগরী। এ ব্যাপারে দুই মেয়রের উদ্যোগকে আমরা স্বাগত জানাই। এ উদ্যোগ বাস্তবায়নে কোনো বাধা থাকলে সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে। আমরা ঢাকা শহরের অপরিকল্পিত ও অপরিকল্পিত দুর্ভাগ্যের উত্তরাধিকার বহন করছি। এ সমস্যা সমাধানে দুই মেয়র কাজ করছেন। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের নেওয়া উদ্যোগ আজ বাস্তবায়িত হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে ঢাকায় এই বাস সার্ভিস চালু করা হবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। বক্তব্য রাখেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম আতিক, মোহাম্মদপুরের সংসদ সদস্য সাদেক খান প্রমুখ।

এর আগে ওবায়দুল কাদের শারীরিক অসুস্থতার কারণে ১৪ ডিসেম্বর সকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি হন।