তথাকথিত ফতোয়াবাজ নির্মূল করব- প্রতিরোধ করব না

CNNWorld24
CNNWorld24 Dhaka
প্রকাশিত: 6:35 PM, December 16, 2020

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, তথাকথিত ফতোয়া কেবল প্রতিরোধ করা
হবে না, নির্মূল করা হবে।

তিনি বলেন, তথাকথিত ফতোয়া মাঠে ফিরেছে, তাদের রাজনৈতিক এজেন্ডা রয়েছে। তারা বিভ্রান্তিকর ফতোয়া দিয়ে বাংলাদেশকে বিভ্রান্ত করতে চায়। তারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য, শহীদ মিনার এবং স্মৃতিসৌধ সম্পর্কে ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচারন করেছে। তাদের বক্তব্য এবং কাজ সহ্য করা হবে না।

বুধবার-১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় আয়োজিত আলোচনা
সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। মতিঝিলে বিআইডব্লিউটিএ ভবনে এই সভা
অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, জিয়া-এরশাদ মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু ধারন করতে না পারায় বাংলাদেশ এগিয়ে যেতে পারছে না। বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধুর হাত ধরে থাকায়

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে চলেছে। বঙ্গবন্ধু হত্যার পর জিয়া, এরশাদ, খালেদা
জিয়া ইতিহাস বদলানোর জন্য অনেক চেষ্টা করেছেন। তারা পাকিস্তানের আদর্শে দেশ পরিচালনা করেছে। তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং দেশকে আহত করেছে। তারা মুক্তিযুদ্ধের নায়ককে ভিলেনের সাথে প্রতিস্থাপনের চেষ্টা করেছে। স্বাধীনতা বিরোধীদের রাজনীতি করার সুযোগ দিয়েছে।

খালেদা জিয়া যুদ্ধাপরাধীদের হাতে পতাকা তুলেছিলেন এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে আহত করেছিলেন। অনেকে ইতিহাস পরিবর্তন করার চেষ্টা করেছেন কিন্তু করতে পারেন নি।

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসী ও দূরদর্শী নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে চলছে।

উন্নয়ন প্রকল্পগুলি করোনার মহামারী দ্বারা বাধাগ্রস্ত হয়নি। পদ্মা সেতু এখন দৃশ্যমান। সকল ষড়যন্ত্র
ও চ্যালেঞ্জকে কাটিয়ে প্রধানমন্ত্রী নিজের অর্থ দিয়ে পদ্মা সেতু নির্মাণ করেছেন এবং দেশকে বিশ্বে
মর্যাদাপূর্ণ স্থানে নিয়ে গেছেন।

দেশরত্ন শেখ হাসিনার শক্ত নেতৃত্বে মাতারবাড়ি সমুদ্রবন্দর, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র,
শার্লিন-সিক্সলেন হাইওয়ে, মেট্রো রেল ও এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণের কাজ এগিয়ে চলছে।

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল এম শাহজাহান, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল এসএম আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।