টেলিনর এবং গুগল ক্লাউড একটি জোট গঠন করে

Desk Reporter
Desk Reporter
প্রকাশিত: ২:৩৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৭, ২০২১

তথ্য প্রযুক্তি ডেস্ক:
নরওয়েজিয়ান টেলিকমিউনিকেশন কোম্পানি Telenor এবং Alphabet Inc.-এর Google ক্লাউড একটি জোট গঠন করেছে।

টেলিনরের গ্লোবাল অপারেশন ডিজিটাইজ করার জন্য এই জোট গঠন করা হয়েছিল।

সোমবার (১৫ নভেম্বর) আনুষ্ঠানিকভাবে নতুন দুটি জোটের ঘোষণা দেয় সংগঠনটি। এই অংশীদারিত্বের ফলস্বরূপ, টেলিনর এখন তার নিজস্ব আইটি এবং নেটওয়ার্ক অবকাঠামোর সক্ষমতা বাড়াতে Google ক্লাউডের পরিষেবাগুলি গ্রহণ করবে।

টেলিনর বর্তমানে ১৭২ মিলিয়ন গ্রাহকদের সেবা দিচ্ছে। কোম্পানির মোট আয়ের অর্ধেক আসে এশিয়া থেকে। বাকি অর্ধেক নর্ডিক অঞ্চল থেকে আসে।

টেলিনরের সিইও সিগভে ব্রেক সাংবাদিকদের বলেন, ডিজিটালাইজেশন প্রকল্পটি টেলিনরের নতুন রাজস্ব কৌশল আবিষ্কারের অংশ।

তিনি বিশ্বাস করেন যে সফ্টওয়্যারের উপর টেলিকম নেটওয়ার্কের ক্রমবর্ধমান নির্ভরতার মধ্যে টেলিনরের ক্লাউড-ভিত্তিক ব্যবসা গড়ে তোলা দরকার। গুগলের ডেটা ম্যানেজমেন্ট জ্ঞান, মেশিন লার্নিং এবং কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ক্ষমতা কোম্পানিটিকে এই কাজের জন্য উপযুক্ত করে তুলেছে।

“আমি মনে করি টেলকোর ভবিষ্যত সংযোগের বাইরে নতুন পরিষেবা তৈরি করার মধ্যে নিহিত,” তিনি বলেছিলেন। ডিজিটাইজেশন মানে ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমকে স্ট্রিমলাইন করা। কোন ঝামেলা হওয়ার আগেই আন্দাজ করতে পারা। ব্যাকএন্ড প্রক্রিয়া পরিবর্তন করলে গ্রাহকরাও আরও ভালো সেবা পাবেন।

গুগল ক্লাউডের সিইও থমাস কুরিয়ান বলেন, “এটি কেবল ডেটা সেন্টার অপ্টিমাইজ করা বা ক্লাউডে ডেটা সেন্টার আনার বিষয়ে নয়।” আমরা ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের সঙ্গে কাজ করছি। এতে আমরা শুধু প্রযুক্তি প্রদানকারীর ভূমিকাই পালন করছি না, আমরা যৌথভাবে গ্রাহকদের সেবা খাতের উন্নয়নের চেষ্টা করছি।